বিমানবন্দরে কৃষ্ণা ও শামসুন্নাহারের লাগেজ থেকে টাকা চুরি

বিমানবন্দরে কৃষ্ণা ও শামসুন্নাহারের লাগেজ থেকে টাকা চুরি
ফাইল ছবি

বিমানবন্দরে সাফজয়ী বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দলের দুই সদস্য কৃষ্ণা রানি সরকার ও শামসুন্নাহারের লাগেজ কেটে ডলার ও টাকা চুরি হয়েছে। দুজনের প্রায় দেড় লাখ টাকার মতো খোয়া গেছে। এ ছাড়া দলের অন্যান্য সদস্যের লাগেজও পাওয়া গেছে ভাঙা অবস্থায়।

আজ বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারী ফুটবল দলের খেলোয়াড় তহুরা খাতুন।

সাফের ফাইনালে জোড়া গোল করে বাংলাদেশ দলকে শিরোপা এনে দেওয়া কৃষ্ণা রানী সরকারসহ কয়েকজনের ব্যাগ থেকে চুরি হয়েছে নগদ অর্থ। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কৃষ্ণা। তার ব্যাগে থাকা প্রায় ৯০০ ডলার ও ৫০ হাজার বাংলাদেশি টাকা চুরি হয়েছে। অর্থাৎ প্রায় দেড় লাখ টাকা হারিয়েছেন ফাইনালে জোড়া গোল করা এই ফুটবলার। মুঠোফোনে গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফুটবলার তহুরা খাতুন।

শুধু কৃষ্ণার নয়, বরং ডলার ও টাকা চুরি হয়েছে সানজিদা ও শামসুন্নাহার সিনিয়রেরও।

এই ব্যাপারে তহুরা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘কৃষ্ণা আর সানজিদার ৯০০ ডলার একসাথে ছিল। বড় শামসুন্নাহারের ৪০০ ডলার। আর কৃষ্ণার ৫০ হাজার টাকা ছিল বাংলায়। এছাড়া ঋতুর (ঋতুপর্ণা) লাগেজ টানাটানি করে নষ্ট করে দিয়েছে। এরকম ব্যাগ টানাটানি করেছে কয়েকজনের। একটা হ্যান্ড লাগেজ খুলে উল্টিয়ে রেখে দিয়েছে।’

এরকম ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি জানিয়ে শামসুন্নাহার বলেন, ‘আমার ৪০০ ডলার হারাইছে। সাথে ছিল কৃষ্ণার ৯০০ ডলার আর ৫০ হাজার টাকা। এটা তো অবাক হওয়ার মতো ঘটনা। এর আগে কখনও হয়নি এরকমটা। এবারই হইছে আমার সাথে। ’

অন্যদিকে মার্জিয়ার ব্যাগ থেকে কিছু সংখ্যক নেপালি মুদ্রা হারানোর কথা জানিয়েছেন দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

এ ছাড়াও অনেকের লাগেজের তালা ভাঙা ছিল বলেও জানানো হয়। যেখানে শাড়ি, প্রসাধনীসহ মূল্যবান উপহার সামগ্রী ছিল বলে জানা যায়। সারাদিনের সংবর্ধনা ও ক্লান্তি শেষে ফুটবলাররা যখন লাগেজ হাতে পান, তখন বিষয়টি নজরে আসে তাদের।