মাতা মেরির সাজে পর্নস্টার, নেটদুনিয়ায় ঝড়

ধর্মীয় কোনো বিষয় নিয়ে এমনিতেই নেটদুনিয়ায় বিতর্কের ঝড় ওঠে। সে আগুনে ঘি ঢাললেন পর্নস্টার মিয়া খলিফা। ভার্জিন মেরির ছবিতে এবার ভেসে উঠল তার মুখ। আর তা নিয়েই বিস্তর ট্রোলের শিকার হতে হলো মিয়াকে।

ঘটনার সূত্রপাত বেশ কিছুদিন আগে। নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাইয়ের একটি ছবিকে নেটিজেনদের অনেকে মিয়া খলিফা ভেবে ভুল করেছিলেন। তা নিয়েও অনেক হইচই হয়েছিল। সেই ঘটনা মনে করিয়ে দিয়ে খানিকটা মজা করে এ ছবি পোস্ট করেছিলেন মিয়া। ছবির ক্যাপশনেও তাই লিখেছেন। কিন্তু যে ছবি তিনি পোস্ট করেছেন সেটি ভার্জিন মেরির ছবি বলেই পরিচিত। প্রযুক্তির সাহায্যে শুধু ছবিটির মুখের জায়গায় মিয়ার মুখ বসানো। এ ছবি পোস্টের পর থেকেই নেটদুনিয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাকে।

তবে নেটদুনিয়ায় তাকে নিয়ে বিতর্ক তো এই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিকবার বিতর্কে জড়িয়েছেন এই পর্নস্টার। তবে পর্নদুনিয়ায় বরাবরই শীর্ষস্থানে থেকেছেন তিনি। এর আগে আইসিস জঙ্গিগোষ্ঠী তাকে শিরশ্ছেদের হুমকিও দিয়েছিল।

তবে মিয়া খবরের শিরোনামে উঠে আসেন ২০১৫ সালে। পর্নদুনিয়ায় সেই প্রথম হিজাব পরে কাউকে পারফর্ম করতে দেখা গিয়েছিল। বিতর্কিত সেই ভিডিও মিয়া খলিফাকে নীলছবির দুনিয়ার বাইরেও ব্যাপক পরিচিত হয়।

আদতে মুসলিম পরিবারের সন্তান হলেও পরে তিনি খ্রিস্টান ধর্ম গ্রহণ করেন। এ তথ্য অনেকের কাছেই অজানা। পুরনো ভিডিওর জেরে এখনো মিয়াকে ইসলাম ধর্মাবলম্বী মনেই করেন অনেকে। সে কারণেই সম্ভবত মেরির ছবির জায়গায় তাঁর মুখ দেখে নেটিজেনদের একাংশ সমালোচনায় রত হয়েছেন। যদিও মিয়ার তরফে তার কোনো উত্তর মেলেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৭ ঘণ্টা, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পিকে