Home আন্তর্জাতিক আমার থেকে ভয়ঙ্কর কেউ হবে না : মমতা

আমার থেকে ভয়ঙ্কর কেউ হবে না : মমতা

- Advertisement -

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি সভাপতি অমিত শাহর রোড শো ঘিরে মঙ্গলবার রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিলো পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতা। বিজেপির উচ্ছ্বঙ্খল কর্মীরা বিদ্যাসাগর কলেজে ঢুকে ভাঙচুর চালায়, টুকরো টুকরো করে ভেঙে মাটিতে মিশিয়ে দেয়া হয় বিদ্যাসাগরের মূর্তি।

মূর্তি ভাঙার ঘটনায় ক্ষুব্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘আগে বলেছিলাম বদলা নয়, বদল চাই। এবার বদলা চাই, গণতান্ত্রিকভাবেই বদলা চাই। এতদিন মাথা গরম করিনি, কিন্তু আজ করছি। ওরা বাংলার হেরিটেজ, বাংলার মনীষীর গায়ে হাত দিয়েছে। আমার থেকে ভয়ঙ্কর কেউ হবে না। তোমাদের ঔদ্ধত্য খর্ব করবই।’

- Advertisement -

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কলকাতায় এক নির্বাচনী জনসভার মঞ্চ থেকে মমতা বলেন, ‘এতদিন চুপ করে বসেছিলাম। এবার বুঝে নেব। ২৩ তারিখের পর সব বুঝে নেব। এটা কলকাতার লজ্জা। নকশাল আমলেও এসব হয়নি। বিজেপি, মনে রেখ, ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে এর জবাব দেব।’

সুকান্ত ভট্টাচার্যের কবিতা আওড়ে মমতা জানিয়েছেন তার ক্ষোভের কথা। বলেছেন, ‘আদিম হিংস্র মানবিকতার যদি আমি কেউ হই/স্বজন হারানো শ্মশানে তোদের চিতা আমি তুলবই।’

বেহালার ওই জনসভার পরই ঘটনাস্থল বিধান সরণীতে বিদ্যাসাগর কলেজ পরিদর্শনে যান মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি জানান, এই ঘটনা নিয়ে কলকাতা পুলিসের নাম করে একটি ‘ফেক’ বিবৃতি বাজারে ছড়ানো হয়েছে। যাতে গোটা ঘটনার জন্য তৃণমূলকেই দায়ী করা হয়েছে। পুলিশ কমিশনার ডঃ রাজেশ কুমার জানান, এরকম কোনও বিবৃতি কলকাতা পুলিশের তরফে দেওয়া হয়নি।

বেহালায় সভা চলাকালীন বিদ্যাসাগর কলেজে হামলা এবং মূর্তি ভাঙার ঘটনার খবর পান মমতা। মঞ্চেই ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে তৃণমূল নেত্রী বলেন, ‘অমিত শাহবাবু এখানে রোড শো করতে এসেছেন। রাজস্থান, বিহার, ঝাড়খণ্ড আর উত্তরপ্রদেশ থেকে লোক এনে। সাধারণ লোক নয়, বিজেপি’র গুণ্ডারা এসেছিল। মিছিল শেষে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙল, আগুন জ্বালাল। গলার সুর চড়িয়ে মমতার হুঙ্কার, বাংলার হেরিটেজকে অপমান করেছে ওরা, ভেঙেছে মণীষীর মূর্তি। এবার আর চুপ করে থাকব না।’

এরপরই বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহকে গুণ্ডা বলে সম্বোধন করে মমতা বলেন, ‘অমিত গুণ্ডা, হ্যাঁ, গুণ্ডাই বলব। আজ আমাকে কেউ আটকাতে পারবে না। এত বড় সাহস! এর শেষ দেখে ছাড়ব।’

এর পরেই দলীয় কর্মীদের শান্ত থাকার বার্তা দিয়ে মমতা বলেন, ‘উত্তেজিত হবেন না। রেগে যাবেন না। গণতান্ত্রিক ভাবে বদলা চাই।’ এসময় বিদ্যাসাগরের ছবি নিয়ে মিছিল করার কথাও বলেন তিনি। রাতেই নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টের প্রোফাইল পিকচার বদলে ফেলেন তিনি। সেখানে বিদ্যাসাগরের ছবি ব্যবহার করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই ভাঙচুরের প্রতিবাদে আগামীকাল বৃহস্পতিবার কলকাতায় এক একটি প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দিয়েছেন মমতা। ওই মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের বুকে থাকবে বাংলার নানা মণীষীর ছবি সংবলিত ব্যাজ।

- Advertisement -