দ্বিতীয় দিনে অটল পাটকল শ্রমিকদের আমরণ অনশন

jut mil

জাতীয় মজুরি কমিশন বাস্তবায়ন, সরকারি-বেসরকারি অংশীদারির সিদ্ধান্ত বাতিল, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকা প্রদানসহ ১১ দফা দাবিতে আমরণ অনশন করছে রাজশাহী জুট মিলের শ্রমিক-কর্মচারিরা। মঙ্গলবার দুপুর ২টার পর জুট মিলের প্রধান ফটকে তারা আমরণ অনশন শুরু করেন। শ্রমিকরা রাস্তার উপর চট বিছিয়ে এবং কাঁথা-বালিশ নিয়ে অনশন কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে শীতের কারণে পাটকল শ্রমিকদের অনেকেই এখন ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।

রাজশাহী জুট মিলসের সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জিল্লুর রহমান জানান, মঙ্গলবার সকাল ৮টায় আমরণ অনশনের কর্মসূচি ছিল। কিন্তু সকাল ১০টা থেকে জাতীয় মজুরি কমিশনের চেয়ারম্যানের সঙ্গে জুট মিলস সিবিএ নেতৃবৃন্দের বৈঠক হয়। সে বৈঠকে তাদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস পাওয়া যায়নি। এ কারণে দাবি না মানা পর্যন্ত অনশন করবে শ্রমিক কর্মচারীরা।

তিনি বলেন, রাজশাহী জুট মিলস এ প্রায় দুই হাজার ২০০ শ্রমিক কর্মচারী আছে। এদের মধ্যে কর্মচারীদের তিন মাসের ও শ্রমিকদের ১১ সপ্তাহের বেতন বকেয়া আছে। তবে তাদের এখন প্রধান দাবি তিনটি। এগুলো হলো জাতীয় মজুরি কমিশন বাস্তবায়ন, সরকারি-বেসরকারি অংশীদারির সিদ্ধান্ত বাতিল, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকা প্রদান।