নবীপুরে শ্যালিকাকে হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

execution order

কিশোরগঞ্জে শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। রবিবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক কিরণশংকর হালদার এই রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আদালতে আসামি শাহীন উপস্থিত ছিলেন। সাক্ষ্যপ্রমাণের অভাবে মামলার অপর দুই আসামিকে খালাস প্রদান করা হয়।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, নিকলী উপজেলার ভাটিবরাটিয়া গ্রামের শাহীন একই উপজেলার শেখ নবীপুর গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে ঘরজামাই হিসেবে বসবাস করতো। ২০১৭ সালের ১১ মে রাতে শাহীন তার শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর হত্যা করে। এ ব্যাপারে নিকলী থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ শাহীনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় রুবেল ও কাজল নামে দুইজনকে খালাস দেয়া হয়।সরকার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট এম এ আফজল এবং আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মোজাম্মেল হক খান মাখন।