বরগুনায় গরিব অজুহাতে বিয়ে ভাঙায় কলেজছাত্রীর বিষপান

বরগুনায় গরিব অজুহাতে বিয়ে ভাঙায় কলেজছাত্রীর বিষপান
কলেজছাত্রী তামান্না - সংগৃহীত ছবি

বরগুনার আমতলীতে এক কলেজছাত্রীর বিয়ে ভেঙে যাওয়ায় বিষপানে মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পরিবারের অভিযোগ, গরিব হওয়ার অজুহাতে ভেঙে যায় এ বিয়ে। ওই কলেজছাত্রী পরে অভিমানে বিষপান করে। তবে অপর পক্ষ এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এর আগে গত সোমবার (১৩ জুন) ওই কলেজছাত্রী বিষপান করেন। পরে শনিবার (১৮ জুন) বরিশাল শেরে বাংলা মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ওই কলেজছাত্রীর নাম তামান্না। সে আমতলীর হলদিয়া ইউনিয়নের উত্তর তক্তাবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা ছিল।

তামান্নার স্বজনরা জানান, আমতলীর আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের সুজন হাওলাদার নামে এক যুবকের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে পারিবারিকভাবে গত শুক্রবার তাদের বিয়ের তারিখ ঠিক হয়। মেয়ের পরিবার গরিব হওয়ায় হঠাৎ সুজনের খালা বিয়েতে আপত্তি করেন। এ কারণে বিয়ে ভেঙে যায়।

তাদের দাবি, এরপর অভিমানে গত সোমবার সকালে সে বিষপান করে। প্রথমে তাকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় একইদিন বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। শনিবার সকালে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তামান্নার বাবার অভিযোগ, সুজনের খালা মাহফুজা আমাদের গরিব বলেন এবং মেয়ের মা বিদেশে থাকেন এই অজুহাত দেখিয়ে বিয়ে ভেঙে দেন। অভিমানে মেয়ে বিষপান করে।

তবে সুজন হাওলাদার বলেন, শুক্রবার বিয়ের তারিখ ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু আমার পরিবারের সঙ্গে কথার মিল হয়নি। তাই বিয়ে হয়নি। তবে কী কারণে বিষপান করেছে তা আমাদের জানা নেই।

এ বিষয়ে আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি। পেলে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।