৫ লাল কার্ডের ম্যাচেও হারের বৃত্তে পিএসজি

- ইন্টারনেট

নতুন মৌসুমের শুরুটা মোটেও স্বস্তিদায়ক হলো না ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের। রোববার ফরাসি লীগ ওয়ানে একটি ফাউলকে কেন্দ্র করে প্যারিস সেন্ট জার্মেইর (পিএসজির) খেলোয়াড়রা মার্সেইয়ের বিপক্ষে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। পরে এই ঘটনায় দুই দলের পাঁচ খেলোয়াড় লাল কার্ড পেয়ে বহিষ্কৃত হন। লীগ ওয়ানে আগের ম্যাচে করোনার হানায় মূল তারকারা খেলতে পারেননি। করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে রোববার মাঠে নেমেছিলেন অ্যাঞ্জেল ডি মরিয়া-এমবাপে-নেইমাররা। তারপরেও রোববার রাতে মার্সেইর বিপক্ষে ভাগ্য বদল হয়নি পিএসজির। বরং ফল ছাপিয়ে ম্যাচ আলোচনায় এসেছে নেইমারসহ ৫ জনের লাল কার্ডের! লীগ ওয়ানের ম্যাচে রোববার রাতে ১-০ গোলে জিতেছে মার্সেই। উত্তেজনাপূর্ণ ও ফাউলময় ম্যাচে ব্যবধান গড়ে দেন মার্সেইয়ের ফরাসি ফরোয়ার্ড ফ্লোরিয়ান থুভান। ২০১১ সালের নভেম্বরের পর পিএসজির বিপক্ষে এটাই তাদের প্রথম জয়।

পুরো ম্যাচে ছিল না ফুটবলের স্বাভাবিক গতি ও ছন্দ। শুরু থেকেই একের পর এক ফাউলে বারবার ছেদ পড়েছে খেলায়। দুদলের খেলোয়াড়রা ছিলেন যেন যুদ্ধংদেহী মেজাজে! পাঁচটি লাল কার্ড ও ১২টি হলুদ কার্ড মিলিয়ে মোট ১৭টি কার্ড দেখাতে হয়েছে রেফারিকে। যা একবিংশ শতাব্দীতে লিগ ওয়ানের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে পিএসজির পারেদেস ও মার্সেইয়ের দারিও বেনেদেত্তোর মধ্যে একটি ফাউল নিয়ে শুরু হয় লড়াই। লাথি মারা থেকে শুরু করে ধাক্কাধাক্কি, হাতাহাতি; কদর্যতার কোনো অংশই বাদ থাকেনি। উত্তাপ কমে এলে শাস্তি হিসেবে ৫ জন খেলোয়াড় দেখেছেন লাল কার্ড। যাদের মধ্যে পিএসজির নেইমার, কুরজাওয়া, লিয়ান্দ্রো পেরেদেস এবং মার্সেইর দারিও বেনেদেত্তো ও জর্ডান আমাভি লাল কার্ড দেখেছেন। নেইমার ম্যাচের সময় মার্সেইর আলভারো গনসালেসের সঙ্গে বেশ কয়েকবারেই সংঘর্ষে জড়িয়েছেন। শুরুতে অবশ্য নেইমারকে শাস্তি দেওয়া হয়নি। পরে ভিডিও রেফারির সাহায্য নিয়েই লাল কার্ড দেখানো হয় নেইমারকে।

– ইন্টারনেট নিউজ