কুয়েতে কর্মদক্ষতার সম্মাননা পেলেন বাংলাদেশি

কুয়েতে কর্মদক্ষতার সম্মাননা পেলেন মাহবুবুল আলম নামে এক বাংলাদেশি

মাহবুবুল আলম নামে এক বাংলাদেশি নিজের কর্মদক্ষতা ও পরিশ্রমের জন্য কুয়েতে সম্মাননা পেয়েছেন। মাহবুবুল আলমকে এই সম্মাননা দেওয়া হয় কুয়েত ইউনিভার্সিটি ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের আর্কিটেক্ট কলেজের পক্ষ থেকে। দীর্ঘদিনের কাজের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন মাহবুবুল আলমকে সম্মাননার অংশ হিসেবে প্রশংসাপত্র ও ক্রেস্ট দেওয়া হয় ।

মাহবুবুল আলমের বাড়ী চট্টগ্রাম জেলার রাউজান উপজেলায়। ৩৭ বছর আগে জীবন জীবিকার তাগিদে কুয়েতে পাড়ি জমান তিনি। ১৯৯০ সালে কুয়েত-ইরাকের যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে দেশে প্রত্যাবর্তন করেন। এরপর মাহবুবুল আলম পুনরায় কুয়েতে ফিরে ১৯৯৭ সাল থেকে অদ্যাবধি কুয়েত ইউনিভার্সিটির স্টাফ ক্যাটাগরিতে সততা ও দক্ষতার সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছেন। দীর্ঘদিনের কাজের কর্মদক্ষতা ও তার পরিশ্রমের মাধ্যমে সবার মন জয় করে সুনাম অর্জন করেন। কুয়েত ইউনিভার্সিটি ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের আর্কিটেক্ট কলেজ তার এই কর্মদক্ষতা ও সততার জন্য তাকে সম্মাননা দেয়।

মাহবুবুল আলম এক ছেলে এক মেয়ের গর্বিত পিতা। ছেলে জার্মানিতে গ্রাজুয়েশন শেষ করে চাকরি করছেন আর মেয়ে চট্টগ্রাম মহসিন কলেজে অধ্যায়নরত। দীর্ঘ সময়ের প্রবাস জীবনের ইতি টেনে মাহবুবুল আলম বাকি সময়টুকু দেশে বন্ধুবান্ধব প্রিয়জন ও পরিবারের সঙ্গে কাটাতে চান।