অপুর জন্মদিনে মায়ের হাতের পায়েসের স্মৃতি!

অপু বিশ্বাস - ফাইল ছবি

গতকাল ছিল ‘ঢালিউড কুইন’ খ্যাত চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের জন্মদিন। ১৯৮৯ সালের এই দিনে বগুড়া জেলার সদর থানার কাটনারপাড়া এস কে লেনে তার জন্ম। তার বাবা উপেন্দ্রনাথ বিশ্বাস এবং মা শেফালী বিশ্বাস। তিন বোন ও এক ভাইয়ের মধ্যে অপু সবার ছোট। তার শৈশব-কৈশোর বগুড়াতেই কেটেছে।

২০০৪ সালে আমজাদ হোসেনের পরিচালনায় ‘কাল সকালে’ ছবির মধ্যদিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখেন অপু বিশ্বাস। আর ২০০৬ সালে পরিচালক এফ আই মানিকের ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে শাকিব খানের বিপরীতে নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেন তিনি। এরপর অপু বিশ্বাসকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত তিনি দর্শকদের ১০০টিরও বেশি ছবি উপহার দিয়েছেন।

জন্মদিনের বিশেষ এই দিনে মন খারাপ চিত্রনায়িকা অপুর। এবারই প্রথম মাকে ছাড়া জন্মদিন উদযাপন করছেন অপু বিশ্বাস। আর সে কারণে দিনটিকে ঘিরে নেই কোনো আয়োজনও।

অপুর ভাষ্য হুবহু , ‘আজ আমার জন্মদিন। সবাই বলে জন্মদিনে কি উপহার দেওয়া যায়? কিন্তু আমার সারা জীবনের সেরা প্রাপ্তি আমার মা।’ আর মাকে উদ্যেশ্য করে অপুর বলেন, “তুমি যদি আর একটি বার আমার মুখে পায়েস তুলে খাওয়াতে, তাহলে আমার অনেক বড় গিফট পাওয়া হতো। এই প্রথম তোমার হাতের পায়েস ছাড়া আমার জন্মদিন পার হচ্ছে, ভাবতেও পারিনি।”

তিনি আরও বলেন, তুমি যেখানে থাকো, অনেক ভালো থেকো মা। আমার এই দিনে তুমি আশীর্বাদ করো, তোমার চাওয়া; “জয়কে ডাক্তার বানানো” আমি যেন পূরণ করতে পারি।’

এদিকে, সংসার ও সন্তান এ দুই নিয়েই এখন তার যত ব্যস্ততা। তবে সব কিছুর মাঝেও শোবিজে সময় দিচ্ছেন অপু বিশ্বাস। সর্বশেষ চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস অভিনয় করেন শাকিব খানের বিপরীতে ‘রাজনীতি’ ছবিতে। আর বর্তমানে তার অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ ২’ ছবিটি। দেবাশীষ বিশ্বাসের পরিচালনায় এতে অপু বিশ্বাসের বিপরীতে অভিনয় করেছেন বাপ্পী চৌধুরী।