ফ্রান্সের ঘড়ি ফেলে দিয়ে পণ্য বর্জনের ডাক দিলেন নুসরাত ফারিয়া

নুসরাত ফারিয়া

মহানবী (সা.)-কে অবমাননা করায় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে উত্তাল মুসলিম বিশ্ব। এ কারণে দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাখোঁর সাম্প্রতিক মন্তব্যের প্রতিবাদে বেশকয়টি আরব দেশ ফ্রান্সের পণ্য বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে বিশ্বে বিভিন্ন দেশের আলোচিত ব্যক্তিরাও এই ঘোষণার সঙ্গে একমত পোষণ করছেন। বাংলাদেশেও বেশ কিছুদিন ধরে চলছে প্রতিবাদ। সেই আন্দোলনে অংশ নিলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া।

গত শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) রাতে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে নুসরাত লিখেন, আমি আমার কার্টিয়ে ঘড়িটি ফেলে দিচ্ছি। এরপর নুসরাত ফারিয়া হ্যাশট্যাগের মাধ্যমে ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক দিয়েছেন।

নুসরাত ফারিয়া আরো লিখেন, ‘আমি আর কোনো দিন ফরাসি পণ্য ব্যবহার করব না।’ ফারিয়ার এমন মন্তব্যে অনেক ভক্তই প্রশংসা করেছেন। আবার তার সমালোচনাও করেছেন কেউ কেউ। তবে ফারিয়া সাফ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি চলমান এই বিতর্কের সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত ফ্রান্সের পণ্য ব্যবহার করবেন না।

নুসরাত ফারিয়ার বিরুদ্ধে সমালোচনার জবাবও দিয়েছেন তিনি। গতকাল শনিবার নুসরাত ফারিয়া আরেকটি পোস্টে লেখেন, ‘একটা সহজ বিষয়কে কেন আপনারা জটিল করে তুলছেন। কোনো বিবৃতি যদি আমাকে আঘাত করে তাহলে একজন অভিনেত্রী হিসেবে কেন আমি আমার মতামত জানাতে পারব না?’ ‘আমার ধর্মবিশ্বাস নিয়ে আমি ২০০ ভাগ মতামত জানানোর অধিকার রাখি। আমার অনুভূতি আমি প্রকাশ করতেই পারি। এটাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করা আপনার মানসিকতা, আমার নয়।’