ঢাবিতে ভর্তি হলেন সেই হৃদয়

‘সেরিবাল পালসি’ রোগে আক্রান্ত শারীরিক প্রতিবন্ধী হৃদয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক (আইআর) বিভাগে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন।
বুধবার হৃদয়ের ভর্তির বিষয় নির্ধারণ হয়েছে।

মায়ের কোলে চড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছিলেন হৃদয়। ‘খ’ ইউনিটে ৭৪০ মেধাক্রম নিয়ে অপেক্ষায় ছিলেন তিনি কিন্তু প্রতিবন্ধী কোটা ব্যবহারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালায় তার ভর্তি কার্যক্রম আটকে যায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধিতে প্রতিবন্ধী কোটায় শুধু দৃষ্টি, শ্রবণ ও বাকপ্রতিবন্ধী-এই তিন ধরণের প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে কোটা প্রযোজ্য হবে। এখানে শারীরিক বা অন্য কোন ধরণের প্রতিবন্ধীরা কোটায় ভর্তি হতে পারবেন না।

একপর্যায়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধী কোটার বিধিমালায় সংস্কার এনে শারীরিক প্রতিবন্ধীদেরও যুক্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ তৈরি হয় হৃদয় সরকারের।

উল্লেখ্য, ‘সীমা এক মায়ের নাম’ শিরোনামে হৃদয়ের মাকে নিয়ে ফিচার প্রতিবেদন ছাপা হয়েছিল। এমনকি হৃদয় সরকারের মা সীমা রানী সরকার বিবিসির ১০০ অনুপ্রেরণাদায়ী মায়ের তালিকায় স্থান পেয়েছিলেন। কারণ তিনি প্রবল মানসিক জোরে দারিদ্র আর প্রতিবন্ধকতার বিরুদ্ধে লড়াই করে তার পঙ্গু ছেলেকে এমন উচ্চতায় এনে দিয়েছেন।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পিএস