খালেদার জামিন শুনানির দিকে তাকিয়ে সারা জাতি: রিজভী

Ruhul Kabir Rizvi

আগামীকাল বৃহস্পতিবার দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন, বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক রুহুল কবির রিজভী। সারা জাতি খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে উচ্চ আদালতের দিকে তাকিয়ে আছে। তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে বিনা অপরাধে ৩৬৫ দিন ধরে ক্ষমতার জোরে কারারুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। তিনি নিশ্চিতভাবে জামিনের হকদার।

আজ বুধবার দুপরে ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। রিজভী দাবি করেন, আইন আদালত, ন্যায়বিচার, সংবিধান, মানবাধিকার, মৌলিক অধিকার, বয়স এবং অসুস্থতা সব বিবেচনায় তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার জামিন পাওয়া তাঁর আইনগত অধিকার। দেশ–বিদেশের আইনবিদেরা বলেছেন, এ মামলায় জামিন না পাওয়া বিস্ময়কর।

রিজভী বলেন, ৭৫ বয়সী খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা এতই খারাপ যে তাঁকে মুক্তি দিয়ে উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা না করলে জীবনহানির ঝুঁকি রয়েছে। তিনি অভিযোগ করেন, সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে খালেদা জিয়ার স্বাভাবিক জামিন নিয়ে এত দিন ধরে অনেক টালবাহানা করেছে। এই ষড়যন্ত্রের আরও একটি জলজ্যান্ত প্রমাণ হলো, ২৫ দিন ধরে তাঁর সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ করতে দেওয়া হচ্ছে না। সর্বশেষ গত ১৩ নভেম্বর স্বজনেরা খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ পান। এটি জেলকোডের চরম লঙ্ঘন।

জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টে দুর্নীতির দুটি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ১৭ বছর কারাদণ্ড হয়েছে। ওই দুটিতে তাঁর জামিন আবেদন হাইকোর্টে নাকচ হয়েছে। এখন তিনি আপিল করেছেন। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা শুনানি সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে কাল বৃহস্পতিবার হওয়ার কথা।