ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সর্বাত্মক হামলা শুরু রাশিয়ার

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সর্বাত্মক হামলা শুরু রাশিয়ার
সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেনীয় সেনাদের কোণঠাসা করতে দেশটির পূর্বাঞ্চলে রাশিয়া সর্বাত্মক হামলা শুরু করেছে। গতকাল মঙ্গলবার (২৪ মে) শুরু হওয়া এই লড়াইয়েই অঞ্চলটিতে মস্কোর সামরিক অভিযানের ভাগ্য নির্ধারিত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

রুশ হামলার ঠিক তিন মাসের মাথায় যুদ্ধের ভাগ্যনির্ধারণী লড়াইগুলো চলছে মূলত ইউক্রেনের দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলে। দুটি প্রদেশ- লুহানস্ক ও দোনেৎস্কে বিভক্ত ইউক্রেনের ডনবাস অঞ্চল দখলের চেষ্টা করছে রাশিয়া। ইউক্রেনীয় বাহিনীকে একটি এলাকায় আটকে ফেলার চেষ্টা করছে তারা।

লুহানস্কের গভর্নর সেরহি গাইদাই বলেছেন, লিসিচানস্ক ও সিভিয়েরোদোনেৎস্ককে ঘিরে ফেলতে আক্রমণ চালাচ্ছে শত্রুরা। এখনো ইউক্রেনের নিয়ন্ত্রণে থাকা অঞ্চলগুলোর মধ্যে এ দুটি শহর অন্যতম। তিনি বলেন, সিভিয়ারোদোনেৎস্কে আগুনের তীব্রতা কয়েকগুণ বেড়েছে। তারা শহরটিকে স্রেফ ধ্বংস করছে।

টেলিভিশনে এক সাক্ষাৎকারে লুহানস্ক গভর্নর জানান, সিভিয়ারোদোনেৎস্কে ১৫ হাজার মানুষের বসবাস। শহরটি এখনো ইউক্রেনীয় সেনাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

রয়টার্সের সাংবাদিকেরা ডনবাসের আরও পশ্চিমে বাখমুতে পৌঁছেছেন। তারা গত সোমবার লাইসিচানস্কের দিকে মহাসড়কে তীব্র গোলাগুলির শব্দ শুনেছেন। সেখানে ইউক্রেনীয় সাঁজোয়া যান, ট্যাংক, রকেট লঞ্চার ও সেনাদের বহনকারী বাস সামনের দিকে এগিয়ে যেতে দেখা গেছে।

এর থেকেও পশ্চিমে স্লোভিয়ানস্ক হচ্ছে ডনবাস অঞ্চলের অন্যতম বৃহত্তম শহর, যার নিয়ন্ত্রণ এখনো ইউক্রেনের হাতে। মঙ্গলবার সকালে সেখানে বিমান হামলার সাইরেন বাজানো হলেও রাস্তায় মানুষের ব্যস্ততা দেখা গেছে।

সংবাদ সূত্রঃ রয়টার্স