পৃথিবীতে মহাকাশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা, ধরা যাবে ‘চাঁদ’

পৃথিবীতে মহাকাশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা, ধরা যাবে ‘চাঁদ’
মুন রিসোর্টের সম্ভাব্য নকশা - সংগৃহীত ছবি

এবার চাইলেই ঘুরতে যাওয়া যাবে চাঁদে। না, এজন্য পাড়ি দিতে হবে না মহাকাশ। বিমানে চেপে শুধু পৌঁছে যেতে হবে দুবাই। কারণ দুবাইতেই নির্মাণ হতে যাচ্ছে ‘চাঁদের রিসোর্ট’। ফলে এবার পৃথিবীতে বসেই আপনি ছুঁতে পারবেন ‘চাঁদ’।

দুবাই শহরে নির্মাণ হতে যাচ্ছে বিলাসবহুল এক রিসোর্ট। যা দেখতে হবে অবিকল চাঁদের মতো। এমনকি এ রিসোর্টের নাম রাখা হয়েছে ‘মুন ওয়ার্ল্ড রিসোর্ট’। সংক্ষেপে বলা হচ্ছে ‘মুন রিসোর্ট’ বা চাঁদের রিসোর্ট। সংবাদমাধ্যম অ্যারাবিয়ান বিজনেস সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানায়, স্থলভাগে সাশ্রয়ী মূল্যে পর্যটকদের মহাকাশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা দিতেই তৈরি করা হচ্ছে এই রিসোর্ট। এটি নির্মাণের দায়িত্বে রয়েছে কানাডার একটি সংস্থা।

নাম যেহেতু মুন রিসোর্ট, তাই স্বাভাবিকভাবেই এর আকৃতি হবে চাঁদের মতো গোলাকার। তবে এই স্থাপত্যের উচ্চতা নেহাত কম নয়। প্রায় ৭৪৫ ফুট উঁচু হবে এই মুন রিসোর্ট।

আর রিসোর্টটিকে গোলাকার অর্থাৎ চাঁদের চেহারা দিতে ব্যবহার করা হচ্ছে কংক্রিট, কাচ, স্টিল, কার্বনফাইবার এবং অ্যালুমিনিয়াম। এটি নির্মাণে খরচ হবে প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকা।

চাঁদের জমি কিনে কতজন সেখানে বসবাস করতে পারবে তা হয়তো কারও জানা নেই। কিন্তু এই মুন রিসোর্টে একসঙ্গে থাকতে পারবেন প্রায় এক কোটি মানুষ। কারণ এই রিসোর্টের ভেতরে থাকবে বিলাসবহুল হোটেল থেকে শুরু করে স্পা, রেস্তোরাঁসহ নানা সুযোগ-সুবিধা।

বিনোদন ও পর্যটনেরও কোনো কমতি থাকবে না এই রিসোর্টে। এমনকি এখানে থাকবে ৩০০টি আবাসন। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘স্কাই ভিলা’।

মহাকাশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা সরাসরি পৃথিবীতে পাওয়ার জন্যই তৈরি করা হচ্ছে এই মুন রিসোর্ট। স্থাপত্যশিল্পীদের দাবি, পর্যটকরা যাতে মহাকাশ ভ্রমণের মতো অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারেন সে জন্য ‘লুনার কলোনি’ নামের একটি বিশেষ রিসোর্টও তৈরি করা হচ্ছে মুন রিসোর্টের মধ্যে। এই লুনার কলোনিতে একসঙ্গে ২১ লাখ পর্যটক মহাকাশ ভ্রমণের অনুভূতি নিতে পারবেন।

সংবাদ সূত্রঃ এনডিটিভি, টিভি নাইন বাংলা