মেসির গোল বাতিল, আবারও ভিডিও রেফারি নিয়ে চলছে তীব্র সমালোচনা

messi

ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভার) নিয়ে আবারও শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনা। প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে ১-১ হওয়া বিশ্বকাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচে লিওনেল মেসির গোল নাকচ হয়ে যায় ভিডিও প্রযুক্তির মাধ্যমে। তার পরেই ফুটবল বিশ্বে ফের আলোচনা শুরু হয়েছে। আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি দাবি করেছেন, ভার নিয়ে নতুন করে চিন্তাভাবনা করা হোক।

একটি লম্বা কাউন্টার অ্যাটাক শুরু হওয়ার পরে প্রায় ১২ মিটার দূর থেকে মেসি গোল করেন। কিন্তু খেলা থামিয়ে দিয়ে প্রযুক্তির সাহায্য নিতে থাকেন রেফারি। কারণ? আক্রমণ শুরু হওয়ার সময়ে আর্জেন্টিনার অর্ধেই না কি একটি ফাউল হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত মেসির গোলটি বাতিলও করে দেওয়া হয়। যে কারণে জেতার কাছাকাছি এসেও জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা। গোড়ালিতে চোট নিয়েই মেসি দেশের জার্সিতে মাঠে নামেন। তিন ম্যাচ খেলে ৭ পয়েন্ট পেয়ে তাঁরাই এখনও লাতিন আমেরিকা গ্রুপে শীর্ষে।

ক্ষিপ্ত স্কালোনি বলেছেন, ‘‘ভিডিও প্রযুক্তির প্রয়োগে ভারসাম্য আনা দরকার। এটা ভাল না খারাপ সেই প্রসঙ্গে যাচ্ছি না’’ যোগ করেন, ‘‘আমাদের হতাশ হয়ে মাঠ ছাড়তে হল কারণ আর্জেন্টিনা জেতার জন্য সব কিছুই করেছিল। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা প্রতিপক্ষকে চেপে ধরেছিলাম। এই দলটা জেতায় বিশ্বাস করে। আশা করি, সবাই সেটা বুঝতে পারছে।’’

দু’বারের বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা শেষ ৯ ম্যাচ ধরে অপরাজিত ছিল। প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে প্রথমার্ধেই তারা পিছিয়ে পড়ে। পেনাল্টি থেকে গোল করেন রোমেরো। ২০১৪ এবং ২০১৮-তে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি প্যারাগুয়ে। এ বারে কিন্তু ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের জন্য তারা এখনও পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে অপরাজিত। তাদের রয়েছে পাঁচ পয়েন্ট। আর্জেন্টিনাও অপরাজিত এবং সাত পয়েন্ট রয়েছে সংগ্রহে। মেসিদের পরের ম্যাচ আগামী মঙ্গলবার পেরুর সঙ্গে। প্যারাগুয়ে এর পর খেলবে কোনও পয়েন্ট অর্জন করতে না পারা বলিভিয়ার বিরুদ্ধে।

রোমেরোর গোলে প্যারাগুয়ে এগিয়ে যাওয়ার পরে আর্জেন্টিনার নিকোলাস গঞ্জালেস সমতা ফেরান ৪১ মিনিট। তার কিছুক্ষণ পরেই মেসির গোল বাতিলের ঘটনা ঘটে। যে বিতর্কের রেশ থেকে যায় ম্যাচের পরেও। তবে আর্জেন্টিনার কাছে বড় ধাক্কা মিডফিল্ডার এক্সেসিয়েল পালাসিয়োসের হাঁটুতে চোট পাওয়া। আগামী এক মাস সম্ভবত তিনি খেলতে পারবেন না। যার অর্থ পেরুর বিরুদ্ধে তাঁকে পাবে না আর্জেন্টিনা। উদ্বেগ রয়েছে মেসিকে নিয়েও। সম্ভবত চোটের জন্যই এ দিন তাঁর খেলায় প্রত্যাশিত ছন্দ ছিল না। এ বারের যোগ্যতা অর্জন পর্বে তিনি একটি মাত্র গোল করেছেন পেনাল্টি থেকে।