ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশের আগে হঠাৎ বন্ধ হলো বাস

রাজশাহী থেকে ঢাকা রুটে সকল বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে পরিবহন শ্রমিকরা। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার পর থেকে রাজশাহী-ঢাকা রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। পরিবহন নেতারা জানিয়েছেন, নাটোরে বাস শ্রমিকের ওপর হামলার ঘটনায় এ রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু বলেন, আগামীকাল শুক্রবার রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদরাসা ময়দানে ঐক্যফ্রন্টের জনসভা রয়েছে। জনসভাকে কেন্দ্র করেই আকস্মিকভাবে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সরকার ঐক্য ফ্রন্টের জনসভা বানচাল করতেই এটা করেছে। এদিকে, আকস্মিক এই ধর্মঘটের কারণে রাজশাহী-ঢাকা রুটের সাধারণ যাত্রীরা দুর্ভোগের মধ্যে পড়েছেন।

নাটোর থেকে সকল রুটের বাস চলাচল অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ : আমাদের নাটোর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, অভ্যন্তরীন বিরোধ এবং শ্রমিককে মারপিটের ঘটনায় নাটোর থেকে সকল রুটের বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে মালিক এবং শ্রমিকরা। সকাল থেকে উত্তরের জেলা নাটোর থেকে কোন বাস ছেড়ে যায়নি এবং প্রবেশ করতে পারেনি। হঠাৎ করে শ্রমিক ধর্মঘটের কারনে বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা।শ্রমিক নির্যাতনের প্রতিবাদে এই কর্মসূচি অনির্দিষ্টকালের জন্য চলবে জানিয়েছেন শ্রমিক নেতারা।

শ্রমিক নেতারা জানান, নাটোর জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাথে রাজশাহী মালিক সমিতির বিরোধ এবং নাটোরের এক শ্রমিককে মারপিটের ঘটনায় সকাল থেকে সকল রুটের বাস বন্ধ করে দিয়েছে নাটোর মালিক সমিতি এবং শ্রমিকরা। এতে করে নাটোর থেকে কোন বাস ছেড়ে যায়নি বা প্রবেশ করতে পারেনি। শ্রমিক ধর্মঘটের কারনে নাটোর থেকে সারা দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। হঠাৎ করে শ্রমিক ধর্মঘটের কারনে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। ছোট ছোট যানবাহনে গন্তব্য স্থানে যাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এদিকে ধর্মঘটের কারণ নিয়ে ধুয়াশায় রয়েছেন বাস সংশ্লিষ্টরা।

তবে ধর্মঘটের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন, নাটোর জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল রহমান সাগর। নাটোর জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের কার্য নির্বাহী সদস্যসাইফুল ইসলাম জানান, বিরোধি মিমাংসা না হওয়া পর্যণÍ ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দিয়েছেন শ্রমিক নেতারা।

দ্রুত এর সমাধান করে বাস চলাচল স্বাভাবিক করার দাবী জানিয়েছেন যাত্রী ও নাটোরবাসী। এ ব্যপারে নাটোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক ড. রাজ্জাকুল ইসলাম বলেন , বিষয়টি খোজ খবর নিয়ে সমাধানের চেষ্টা চলছে।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কেএস