বেতন পেলেন না লাখ লাখ মার্কিন সরকারি কর্মী

শাট ডাউনের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে মার্কিন সরকারি কর্মীদের ওপর। শুক্রবার বেতন দেয়ার প্রথম নির্দিষ্ট দিনে সরকারি প্রশাসনের আংশিক অংশের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় বেতন পেলেন না লাখ লাখ মার্কিন সরকারি কর্মী । খবর বিবিসির।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, শাট ডাউন শেষ না হওয়া পর্যন্ত প্রায় ৮ লাখ সরকারি কর্মীকে বেতন ছাড়া কাজ করতে হবে।  শুক্রবার বেতন না পেয়ে অনেকে সরকারি কর্মী তাদের খালি বেতন রশিদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন

অস্কার মুরিল্লো নামের নাসার এক প্রকৌশলী তার বেতন রশিদ টুইটারে পোস্ট করেন সেখানে বেতনের পরিমাণে ০ ডলার লেখা দেখা যায়।

এ ছাড়া মার্কিন অনেক সরকারি কর্মীই তাদের নিজেদের জিনিসপত্র বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিক্রি করে দেয়ার জন্য বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন। মার্কিন ওয়েবসাইট ক্রেইগলিস্টের চিত্র তুলে ধরে বিবিসি জানায় সেখানে শিশুদের একটি রকিং চেয়াররের বিজ্ঞাপনে লেখা ওয়ালমার্টে দাম ৯৩.৮৮ ডলার । আমরা চাচ্ছি ১০ ডলার। আমাদের অর্থ প্রয়োজন বিল দেয়ার জন্য

এদিকে শাট ডাউনের প্রভাবে বন্ধ হয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মিয়ামি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কার্যক্রম। কারণ সেখানকার নিরাপত্তা কর্মীরা নিজেদের অসুস্থ বলে দাবি করেছেন।

উল্লেখ্য, অর্থ বরাদ্দ নিয়ে সমঝোতা না হওয়ায় গত ২২ ডিসেম্বর থেকে বন্ধ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের আংশিক অংশের কার্যক্রম যা শাট ডাউন নামে পরিচিত । অভিবাসীদের প্রতিরোধে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রস্তাবিত সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য ডেমোক্র্যাটদের বাধায় সিনেটে পাস না হওয়ায় এমন অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। আর এ জন্য রিপাবলিকান এবং ডেমোক্র্যাটরা একে অপরকে দুষছে। এই শাট ডাউনে মার্কিন সরকারের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা, পরিবহন, কৃষি,খাদ্য নিরাপত্তা, বিচার ব্যবস্থা সহ বিভিন্ন গুরুত্ত্বপূর্ণ সরকারি প্রতিষ্ঠান আংশিকভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। আর এ কারণে এই প্রথমবারের মত ৮ লক্ষ্যের মত মানুষ এই সপ্তাহে তাদের বেতন পাচ্ছেন না।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পিএস