লাইভস্ট্রিমিং করে হামলাকারি; বলে-‘পার্টি শুরু’!

ক্রাইষ্টচার্চের মসজিদে হামলার পুরো দৃশ্য বন্দুকধারী ভিডিও করে। পরে সেটার লাইভস্ট্রিমিং করে। ১৬ মিনিটের হামলার সেই ভয়াবহ হামলার দৃশ্যের ভিডিও খানিকবাদে অনলাইনে পোষ্ট করে সে। সেই ভিডিওতে নিজের পরিচয় জানাতেও দ্বিধা করেনি এই হামলাকারী। ২৮ বছর বয়সী এই হামলাকারী নিজেকে একজন অস্ট্রেলিয়ান বলে দাবি করেছে।

গুলিভর্তি বন্দুক নিয়ে তার এভাবে মসজিদে ঢুকে পাখির মতো মানুষকে হত্যার সেই ভিডিও এখন অনলাইন ছড়িয়ে পড়েছে।

নিউজিল্যান্ড সময় দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে ক্রাইষ্টচার্চের হ্যাগলে পার্কের পাশে এবং লিনউডের আরেকটি মসজিদে প্রায় একই সঙ্গে এই হামলা চালানো হয়। এই সময় শুক্রবারের জুম্মার নামাজের জন্য মসজিদে কমপক্ষে ৩০০ মুসল্লি ছিলেন। হতাহতের ঘটনা বেশি ঘটেছে ত্রাইষ্টচার্চের হ্যাগলে পার্কের মসজিদেই।

১৬ মিনিটের ভিডিওতে হামলাকারি গাড়িতে চড়ে মসজিদে হামলার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়ার সময় থেকেই ভিডিওস্ট্রিমিং চালু করে। গাড়ি চালাতে শুরু করেই সে বলে-‘পার্টি শুরু হয়ে গেলো!’

এই মসজিদ থেকে কিছুটা দুরে ক্রাইষ্টচার্চের হ্যাগলে ওভাল মাঠে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল অনুশীলন করছিলো। সেখান থেকে একজোট হয়ে দলের বেশকয়েকজন ক্রিকেটার টিম বাসে করে মসজিদে জুম্মার নামাজ পড়তে যান। তারা মসজিদের কাছে পৌছে বাস থেকে নামার সময় হঠাৎ করে সেই ভয়াবহ হামলার মধ্যে পড়ে যান। রক্তাক্ত শরীরে মসজিদ থেকে কয়েকজনকে দৌড়ে বেরিয়ে আসতে দেখেন ক্রিকেটাররা। সঙ্গে সঙ্গে ক্রিকেটাররা বাসের মধ্যে ঢুকে শুয়ে পড়েন। খানিকবাদে সেই ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখে ক্রিকেটাররা বাস থেকে নেমে দৌড়াতে শুরু করেন। আতঙ্কিত সেই পরিস্থিতির মধ্যে তারা ফের স্টেডিয়ামে ফিরে আসেন। ভয়াবহ হামলা থেকে নিরাপদে ফিরে আসা ক্রিকেটারদের চোখেমুখে তখন আতঙ্কের ছাপ স্পষ্ঠ।

এই হামলার প্রেক্ষিতে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইষ্টচার্চে সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচ বাতিল করা হয়েছে। বাংলাদেশ দল দ্রততম সময়ের মধ্যে দেশে ফিরে আসছে।