মঞ্চের মধ্যে হুমড়ি খেয়ে পড়লেন মিস ইউনিভার্স ২০১৯-এর সুন্দরীরা

Miss Universe 2019

প্রতিযোগিতায় মঞ্চের মধ্যে হুমড়ি খেয়ে পড়লেন মিস ইউনিভার্স ২০১৯-এর সুন্দরীরা। তাও আবার পাঁচজন মডেল! কেউ একেবারে উল্টে বসেই পড়লেন র‍্যাম্পের মঞ্চে। কেউবা পড়তে পড়তে শেষ মুহূর্তে কোনও মতে সামলে নিলেন নিজেকে।

এবছর জর্জিয়ার আটলান্টা শহরে আয়োজিত হয়েছিল ৬৮তম মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতা। বিশ্বের ৯০ জন সুন্দরী এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। সেখানেই চলছিল সুইমস্যুট রাউন্ড। বিকিনি পরে একের পর এক মডেল আসছিলেন র‍্যাম্প মাতাতে। ছিপছিপে গড়নের সুন্দরীরা সব কিছুতেই ছিলেন একদম পারফেক্ট। আচমকাই ছন্দ পতন হয় মঞ্চে।

পায়ে স্টিলেটো পরে দিব্যি হাঁটছিলেন ফ্রান্সের সুন্দরী বছর ২৫ এর মায়েভা কুকে। হঠাৎই পা পিছলে পড়ে যান তিনি। প্রথমে খানিকটা ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেলেও পরমুহূর্তে হাততালি দিয়ে উঠে দাঁড়ান নিজেই। একই জিনিস হয়েছে ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, মাল্টা এবং নিউজিল্যান্ডের প্রতিযোগীর ক্ষেত্রে। সুন্দরী মডেলদের কেউ কেউ একেবারে হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন র‍্যাম্পের উপর। কেউবা কোনওমতে সামলেছেন নিজেকে।

জানা গেছে, মিস ইউনিভার্সের মঞ্চ ভিজে থাকার কারণেই নাকি ঘটেছে এমন বিপত্তি। ফ্রান্সের সুন্দরীকে দিয়েই শুরু হয় গন্ডগোল। তারপর একে একে আরও চারজন। র‍্যাম্প ওয়াকের মাঝেই আয়োজকদের পক্ষ থেকে একজনকে পাঠানো হয় মঞ্চে। ওয়াইপার দিয়ে স্টেজ মুছে দিতেও দেখা যায় ওই ব্যক্তিকে। তবে তাতেও সমস্যা এড়ানো যায়নি। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়েছে মিস ইউনিভার্সের মঞ্চে মডেলদের এমন হঠাৎ করে পড়ে যাওয়ার ভিডিও। হাসির রোল উঠেছে নেট দুনিয়া।

কেউ কেউ বলছেন, ‘পায়ে পরা হাই হিলের জন্যই হয়তো এভাবে আচমকা পড়ে গিয়েছেন প্রতিযোগীরা। বড় বিপদ হতে পারত।’ এদিকে, এমন বিপত্তি প্রকাশ্যে এসে যাওয়ায় অস্বস্তিতে পড়েছেন অনুষ্ঠানের আয়োজকরাও। এবছর মিস ইউনিভার্সের মুকুট উঠেছে আফ্রিকার জোজিবিনির মাথায়। তাকে সেরার মুকুট পড়িয়ে দেন ২০১৮-র মিস ইউনিভার্স ক্যাটরিওনা গ্রে। রানার্স আপ হয়েছেন পুয়ের্তো রিকোর ম্যাডিসন অ্যান্ডারসন। তৃতীয় হয়েছেন মেক্সিকান সুন্দরী সোফিয়া আরাগন।