করতোয়ার পাড়ে বিকেল পর্যন্ত ৬৮ জনের মরদেহ উদ্ধার

করতোয়ার পাড়ে বিকেল পর্যন্ত ৬৮ জনের মরদেহ উদ্ধার
সংগৃহীত ছবি

আজ মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় ইঞ্জিনচালিত নৌকা ডুবে ৬৮ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ভোর থেকে ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ডুবুরির দল মরদেহ উদ্ধারে কাজ করছে। তাদের সাথে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবীরাও কাজ করছে। আজ মঙ্গলবার উদ্ধার করা হয়েছে ১৭ জনের মরদেহ। এখনো অনেককে খুঁজে না পেয়ে আর্তনাদ করছে স্বজনরা।

উল্লেখ্য, গত রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে উপজেলার মারেয়া ইউনিয়নের আউলিয়ার ঘাট এলাকার করতোয়া নদীতে শতাধিক যাত্রী নিয়ে নৌকাটি ডুবে যায়। বেশ কয়েকজন সাঁতরে পার হলেও আর কতজন নিখোঁজ রয়েছে তার সঠিক কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে সরকারি ভাবে আরও ৪ জন নিখোঁজ রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে নৌযাত্রীদের এমন মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকের কালো মেঘে ছেয়ে গেছে সারা পঞ্চগড়। এখনো সেখানে চলছে শোকের মাতম। নিখোঁজের স্বজনরা করতোয়া পারে আহাজারি করছেন ।

ফায়ার সার্ভিসের রংপুর বিভাগের ডেপুটি ডিরেক্টর জানান, পঞ্চগড়, রংপুর, কুড়িগ্রাম ও রাজশাহী থেকে ১২টি ডুবুরি দল সকাল থেকে উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে ভাটি অংশের ২৫/৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত অভিযান চালানো হচ্ছে। মঙ্গলবার ১৭টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে নারী ৩০ জন, শিশু ২১ জন এবং পুরুষ ১৭ জন রয়েছে। নিহত ১৭ জন হলেন সনেকা (৫৭), হরিকিশোর (৪৫), শিল্টু বর্মণ(২৮), মহেন চন্দ্র (৩০),ভুমিকা রায় পুজা ( ১৫), আঁখি রানি (১৬), সুমি রানী (৩৪), পলাশ চন্দ্র বর্মণ (১৭), ধৃতি রানী (১০), সজিব রায় (০৮),পুতুল (১৫),কবিতা (১১),যত্না রাণী (৪০), মলিন্দ্রনাথ বর্মণ (৫৬), মনিভূষণ বর্মণ(৪৬),মুনিকা (৩৮), দোলা রাণী (৫)। এদের মধ্যে দেবীগঞ্জ উপজেলার ১৭, বোদা ৪৫, আটোয়ারী ২, ঠাকুরগাঁও সদর ৩ এবং পঞ্চগড় সদরের ১ জন নাগরিক। নিহত প্রত্যেক পরিবারকে ধর্মমন্ত্রাণলের পক্ষ থেকে ২৫ হাজার, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার এবং রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৫ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়া হয়েছে।

ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। আগামীকাল বুধবার তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করার কথা রয়েছে। স্থানীয় এমপি রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন আজও ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন। জেলা বিএনপির সদস্য সচিব ফরহাদ হোসেন আজাসহদ আরও অনেকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় রেলমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে আছেন। তার সাথে কথা হয়েছে। তিনি ফিরলেই যারা প্রাণ হারিয়েছে তাদের কি ধরনের সহায়তা করা হবে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।