পিরিয়ডের রক্তের রং জানান দেবে স্বাস্থ্যের অবস্থা

একজন নারীর জীবনে বেশ গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে পিরিয়ড বা ঋতুস্রাব। প্রতিমাসে একটি নির্দিষ্ট সময় রক্তস্রাব হয়ে থাকে। পেটের ভয়াবহ যন্ত্রণা, হেভি ফ্লো, মুড সুইং— সবকিছু মিলিয়ে এসময়ে নারীরা একটু বিরক্তই থাকেন বলা চলে।

কখনো কি পিরিয়ডের রক্তের রং খেয়াল করেছেন? হয়ত বলবেন, রক্তের রং লাল হবে এটাই তো স্বাভাবিক। কিন্তু লালের মধ্যেও রয়েছে ভিন্নতা। আর এই ভিন্ন রঙই জানান দেবে আপনার স্বাস্থ্যের বর্তমান অবস্থা।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ডক্টর অ্যালিসা ভিত্তি, পিরিয়ডের রক্তের রঙকে তিনভাগে ভাগ করেছেন-

-ফ্রোজেন ব্লুবেরি
-স্টবেরি জ্যাম
-ক্র্যানবেরি জুস

এই তিন রঙের রক্তই জানান দেয় শরীরের অবস্থা সম্পর্কে। কী বোঝা যায় এই রঙের মাধ্যমে? চলুন জেনে নিই-

ফ্রোজেন ব্লুবেরি- পিরিয়ডের রক্ত যদি ফ্রোজের ব্লুবেরির মতো হয়, তাহলে বুঝবেন আপনার দেহে ইস্ট্রোজেনের মাত্রা বেশি। এর ফলে ইউটেরাসের লাইনিং হবে মোটা আর রক্তপাত হবে বেশি।

স্ট্রবেরি জ্যাম- পিরিয়ডের রক্তের রং যদি স্ট্রোবেরি জ্যামের মতো টকটকে লাল হয়, তবে বুঝবেন আপনার দেহে ইস্ট্রোজেনের মাত্রা কম। এর ফলে ইউটেরাস লাইনিং হবে পাতলা আর রক্তপাত হবে কম।

ক্র্যানবেরি জুস- এটি হলো সবচেয়ে স্বাভাবিক রং। এর মানে আপনার দেহে হরমোনের মাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে। আর ফ্লোও থাকবে স্বাভাবিক।

খেয়াল রাখবেন- অনেকসময় দুই পিরিয়ডের মধ্যবর্তী সময়ে ছিটে ছিটে রক্ত দেখা যায়। একে স্পটিং বলা হয়। এমনটা হলে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কেননা, এর অর্থ আপনার দেহ অভ্যন্তরে জটিল কোনো সমস্যা হতে পারে।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কেএস