আফগানিস্তানে ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০০০

ভূমিকম্প কবলিত এলাকায় উদ্ধার অভিযান চলছে - ভিডিও থেকে সংগৃহীত ছবি

আফগানিস্তানের একটি দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে পৌঁছেছে কমপক্ষে এক হাজার জনে। আহত হয়েছে আরও ১৫০০ জন। এ ঘটনায় আরও অন্তত ৬০০ জনের মতো নিখোঁজ আছেন। উদ্ধারকর্মীরা নিখোঁজদের উদ্ধারে তৎপড়তা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে স্থানীয় এক কর্মকর্তার বরাতে বলা হয়েছে, আজ বুধবার ভোরে দেশটির পাকতিকা প্রদেশে ভয়াবহ এ ভূমিকম্প আঘাত হানে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দেশটির পাকতিকা প্রদেশে স্ট্রেচারে করে আহত ব্যক্তিদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি ধ্বংসস্তূপ এবং ধ্বংস হয়ে যাওয়া বাড়ি-ঘরের দৃশ্যও উঠে এসেছে।

আফগানিস্তানের স্থানীয় এক সরকারি কর্মকর্তা বিবিসিকে বলেছেন, মৃতের সংখ্যা ২৮০। তবে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। ১৫০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর খোস্ত থেকে প্রায় ৪৪ কিলোমিটার দূরে আঘাত হানে ভূমিকম্পটি। সেখান থেকে প্রায় পাঁচশ কিলোমিটার দূরে আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও ভারতেও ভূমিকম্পটি অনুভূত হয়েছে।

ইউরোপিয়ান মেডিটেরিয়ান সিসমোলোজিক্যাল সেন্টার জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির প্রভাব আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল এবং পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদেও অনুভূত হয়েছে।

পাকিস্তান আবহাওয়া অধিদপ্তরের ন্যাশনাল সিসমিক মনিটরিং সেন্টার জানিয়েছে, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ১। উৎপত্তিস্থল আফগানিস্তানের খোস্ত শহরে।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) অবশ্য ভূমিকম্পের মাত্রা ৫ দশমিক ৯ রেকর্ড করেছে। এতে কেঁপে ওঠে আফগানিস্তান-পাকিস্তান উভয় দেশই।

সংবাদ সূত্রঃ বিবিসি