Home অপরাধ ১০ কোটি টাকার নকল প্রসাধনী ধ্বংস, জরিমানা ১ কোটি ২২ লাখ

১০ কোটি টাকার নকল প্রসাধনী ধ্বংস, জরিমানা ১ কোটি ২২ লাখ

- Advertisement -

রাজধানীর পুরান ঢাকার খাতুন মার্কেটে প্রায় ২১ ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে ১ কোটি ২২ লাখ টাকা জরিমানা ও ১০ কোটি টাকার নকল প্রসাধন সামগ্রী জব্দ করে ধ্বংস করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) ভ্রাম্যমাণ আদালত।এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত ৬ জনকে ২ বছর করে কারাদণ্ড ও ১৬টি দোকান, গোডাউন এবং কারখানা সিলগালা করে দিয়েছে।

শনিবার (২৫ মে) সকাল ১০টা থেকে রবিবার (২৬ মে) সকাল সাড়ে ৭টা পর্যন্ত র‍্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।

- Advertisement -

অভিযান শেষে সারওয়ার আলম বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খাতুন মার্কেটে অভিযান চালানো হয়। এখানকার প্রায় প্রতিটি দোকানে নকল প্রসাধনী বিক্রি হতো। দোকানগুলোর গোডাউন মার্কেটের তৃতীয় তলায় অবস্থিত। সেখানে মোট ৩৩ ধরনের নকল পণ্যের সন্ধান পেয়েছি।’

এরমধ্যে ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী স্নো, ডাভ সাবান, সানসিল্ক শ্যাম্পু, ভাটিকা তেল, মুভ, জনসন লোশনসহ নামীদামি ব্যান্ডের নকল পণ্য পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি।

সারওয়ার আলম বলেন, ‘অভিযান শেষে ১০ কোটি টাকার নকল ওষুধ ডেমরায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের স্যানিটারি ল্যান্ডফিলে নিয়ে ধ্বংস করা হয়। একইসঙ্গে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের মালিককে ১ কোটি ২২ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়। নকল প্রসাধনী তৈরি ও বিক্রির দায়ে ৬ জনকে ২ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়। সিলগালা করে দেয়া হয় ১৬টি দোকান, গোডাউন এবং কারখানা।’

এসময় কসমেটিকস ব্যবসায়ী সমিতির নেতাদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে, যাতে তাদের ছত্রছায়ায় থেকে কেউ আর নকল পণ্য বিক্রি করতে না পারে। তা না হলে পরবর্তীকালে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান সারওয়ার আলম।

টানা এই ২১ ঘণ্টার অভিযানে আভিযানিক টিম সেহরি ও ইফতারের মধ্যেও অভিযান পলিচালনা করেছে বলে জানান র‍্যাবের এই ম্যাজিস্ট্রেট।

- Advertisement -