আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে পোড়াদহে বেনাপোল এক্সপ্রেসের যাত্রাবিরতি

Benapole Express

দেশের বৃহত্তম স্থলবন্দর বেনাপোল ও রাজধানী ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী বিরতিহীন আন্তনগর ট্রেন ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ কুষ্টিয়ার পোড়াদহ জংশনে যাত্রাবিরতি করবে। আগামী ১০ জানুয়ারি শুক্রবার থেকে উভয় পথের যাত্রীরা পোড়াদহ থেকে ওঠানামা করতে পারবেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

আজ রোববার পোড়াদহ জংশনের স্টেশনমাস্টার শরিফুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এতে বৃহত্তর কুষ্টিয়া অঞ্চল থেকে ঢাকায় যাতায়াতকারী যাত্রীদের অনেক সুবিধা হবে। মাত্র ৫ ঘণ্টায় ঢাকায় পৌঁছানো যাবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বছরের ১৭ জুলাই তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিরতিহীন ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ নামের এই নতুন ট্রেনের উদ্বোধন করেন। সেই দিন থেকে ১২ বগির ট্রেনটি সপ্তাহে ছয় দিন বেনাপোল-ঢাকা পথে চলাচল করে।

পোড়াদহ জংশন স্টেশন থেকে ঢাকাগামী যাত্রীদের জন্য মোট ৫৫টি আসন রাখা হয়েছে। এর মধ্যে শোভন চেয়ার ৫০টি, এসি চেয়ার ৫টি। তবে ৫০টি শোভন চেয়ারের মধ্যে ২৫টি আসনের টিকিট অ্যাপসের মাধ্যমে কাটার সুবিধা রাখা হয়েছে। তবে কোনো এসি কেবিন না রাখায় হতাশ হয়েছেন এই পথে ট্রেন ভ্রমণকারী যাত্রীরা।

যাত্রীরা বলছেন, পোড়াদহ জংশন অনেক পুরোনো। এই স্থান থেকে বৃহত্তর কুষ্টিয়ার অনেক মানুষ যাতায়াত করে থাকে। সেখানে এসি কেবিন দেওয়া হলে খুবই ভালো হয়।

পোড়াদহ স্টেশনমাস্টার শরিফুল ইসলাম বলেন, ট্রেনটি ঢাকায় যাওয়ার পথে এবং আসার পথে পোড়াদহে কয়টায় যাত্রাবিরতি দেবে সেই সময় এখনো জানা যায়নি। এটা আগামী ৮ জানুয়ারি বুধবার জানা যাবে।