অনলাইনে বেশি আয় করতেই শীর্ষ পত্রিকা নকল

ফেসবুকের মাধ্যমে বেশি টাকা উপার্জনের জন্যই দেশের শীর্ষ পত্রিকাগুলোকে হুবহু নকল করে রাষ্ট্র ও সরকার বিরোধী ভুয়া খবর প্রকাশ করা হতো। এরপর সেগুলো ফেসবুকে শেয়ার করা হতো। কারণ ফেসবুক ব্যবহারকারীদের অধিকাংশই সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী খবরে বেশি লাইক দেন।

সম্প্রতি কয়েকটি শীর্ষ পত্রিকার ওয়েবসাইট নকল করে মিথ্যা খবর প্রকাশের ঘটনায় গ্রেফতারকৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্যই জানিয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৯ নভেম্বর) রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান র‌্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার মহিউদ্দিন ফারুকী।

এই ঘটনায় কিছুদিন আগে গ্রেফতার হন এনামুল হক নামে একজন পিএইচডি গবেষক। এরপর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের সূত্র ধরে বুধবার (২৮ নভেম্বর) রাতে আরও দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়ে। এসব বিষয়েই সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন র‌্যাব কর্মকর্তা।

মহিউদ্দিন ফারুকী বলেন, ‘সম্প্রতি এনামুল হক নামে একজন গ্রেফতারের পর তার কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গতকাল মোহাম্মদপুর থেকে মো. কামাল হোসেন ওরপে জি এম (২৩) কামাল এবং টঙ্গী থেকে ডোমেইন হোস্টিংকারী আল আমিনকে (৩০) আটক করা হয়। আটকের পর তাদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা অধিক টাকা উপার্জনের জন্য এসব কর্মকাণ্ড করতো।’

গ্রেফতার কামালের ল্যাপটপে প্রথম আলো, নয়াদিগন্ত, বিডি টাইমস, রকমারিসহ বেশ কিছু ভুয়া ওয়েবসাইট পাওয়া যায়। এরপর আল আমিনকে আটকের পর তার ল্যাপটপেও ১৯টি ভুয়া নিউজ সাইট পাওয়া যায়। যেগুলো সে পরিচালনা করতো।

এসব সাইটে সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করে ফেসবুকে শেয়ার দেওয়া হতো বলে জানিয়েছেন গ্রেফতার ব্যক্তিরা। তারা জানিয়েছেন, এসব পোস্টে লাইকের সংখ্যা বাড়লে তাদের আয় বেশি হতো। তাই লাইকের সংখ্যা বাড়াতে বিভিন্ন ওয়েবসাইটের নকল করতে শুরু করেন তারা। এমনকি নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন নিয়েও বিভ্রান্তিকর খবর প্রকাশ করা হয়েছিল বলে জানান র‌্যাব।

এদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান র‌্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/বিএনকে