১০ লাখ অভিবাসী নেবে কানাডা, সুযোগ নিতে পারেন বাংলাদেশিরা

- Advertisement -

পশ্চিমা দুনিয়ার বিভিন্ন দেশ যখন শরণার্থী ও অভিবাসীদের জন্য দরজা প্রায় বন্ধ করে দিয়েছে সেই সময়ে বাস্তুচ্যুত বা উন্নত জীবন-জীবিকার আশায় স্থানচ্যুত  ব্যক্তিদের আশ্রয় দেবে কানাডা। আগামী তিন বছরে সারা বিশ্ব থেকে ১০ লাখ অভিবাসী নেবে কানাডা। সিএনএন জানিয়েছে, ১০ লাখ অভিবাসী নেয়ার এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে কানাডার পার্লামেন্টে, যা প্রতি বছর দেশটির মোট জনসংখ্যার এক শতাংশ। এর আগে ২০১৭ সালে কানাডা সারা বিশ্ব থেকে ২ লাখ ৮৬ হাজার অভিবাসী নিয়েছে। এ বছর সংখ্যাটা সাড়ে ৩ লাখ ছুঁয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

আর ২০২০ ও ২১ সালে তা দাঁড়াবে যথাক্রমে-৩ লাখ ৬০ হাজার ও ৩ লাখ ৭০ হাজারে। এ বিষয়ে কানাডার অভিবাসন, শরণার্থী ও নাগরিকত্ববিষয়ক মন্ত্রী আহমেদ হুসেন বলেন, বিভিন্ন সময়ে যারা কানাডায় অভিবাসী হিসেবে এসেছেন তাদের ধন্যবাদ। দেশের নাগরিকরা একটি শক্তিশালী ও গতিশীল কানাডা উপভোগ করেন।

- Advertisement -

আহমেদ নিজেও কানাডায় অভিবাসী হিসেবে সোমালিয়া থেকে গিয়েছিলেন। তিনি বলেন, পার্লামেন্টের এই সিদ্ধান্ত কানাডার বেড়ে যাওয়া বয়োবৃদ্ধ নাগরিক ও হ্রাস পাওয়া জন্মহারের ভারসাম্য রক্ষা করতে সাহায্য করবে। কানাডার এমন সিদ্ধান্তে খুশি বাংলাদেশিরা। বৈধভাবে অনেক বাংলাদেশি কানাডায় স্থায়ী হয়েছে। অনেকে যেতে আগ্রহী। দেশটির রিকুয়ারমেন্ট বা প্রয়োজন মিটিয়ে বাংলাদেশিরাও এ সুযোগ নিতে পারেন। বিশেষত বৈধভাবে অভিবাসনে আগ্রহী বাংলাদেশের শিক্ষিত তরুণদের জন্য এটি আশীর্বাদ হয়ে এসেছে বলে মনে করছে ঢাকা। 

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কেএস

- Advertisement -