‘এ বিশ্বকাপেই হয়তো ভাঙবে আমার রেকর্ড’

সাক্ষাৎকার: মিরোস্লাভ ক্লোসা

মিরোস্লাভ ক্লোসা। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ গোলের মালিক। গত ব্রাজিল বিশ্বকাপে রোনালদোকে টপকে ১৬ গোলের মালিক হয়েছিলেন। ফাইনালে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে শিরোপা উঁচিয়ে ধরার স্বাদও গ্রহণ করেছেন চারটি বিশ্বকাপ খেলা এই জার্মান তারকা। জার্মানি ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনে (ডিএফবি) স্ট্রাইকারদের নিয়ে এখন কাজ করছেন একজন কোচের ভূমিকায়। রাশিয়া বিশ্বকাপ নিয়ে জার্মান স্ট্রাইকারের ভাবনা জানব আজকের সাক্ষাৎকারে।

প্রশ্ন: আপনি চার মহাদেশের চারটি বিশ্বকাপ খেলেছেন। বিশ্বমঞ্চের এমন প্রতিযোগিতামূলক আসরের অংশ হওয়া একজন খেলোয়াড়ের অনুভূতি আপনার চেয়ে আর কে ভালো বর্ণনা করতে পারবে?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: বিশ্বকাপ সর্বদাই একজন খেলোয়াড়ের কাছে বিশেষ কিছু এবং এর অনুভূতি বলে বোঝানো যায় না। আসর শেষে হাতে ট্রফি উঁচিয়ে ধরাটা অবিশ্বাস্য ব্যাপার। আমরা প্রায়ই বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের কাছাকাছিই থাকি। ২০১৪ সালে বিশ্বকাপ জয় করতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। দু’বার (২০০৬, ২০১০) সেমিফাইনালে উঠে হারের আগে আমরা ২০০২ সালেও ফাইনালে উঠেছিলাম।

প্রশ্ন: জার্মানিকে সবসময়ই যে কোনো টুর্নামেন্টে সম্ভাব্য জয়ী দল ধরা হয়। এটা কি শুধুই উন্মাদনায় নাকি সত্যিকার অর্থে?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: আমরা যে কোনো আসরেই নিজেদের একটি শক্তিশালী দল হিসেবে তৈরি করি, যা আমাদের অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যায়। দলে সক্রিয়তা আর উদ্দীপনা শুধুই বিশ্বকাপের সময় সৃষ্টি হয় না। এটি আমাদের প্রস্তুতির সময় থেকেই শুরু হয়।

প্রশ্ন: জার্মানি কি এবার শিরোপা ধরে রাখতে পারবে?

মিরোস্লাভ ক্লোসা:
আমরা অনেকদূর যেতে পারি, তবে আমাদের দলে সে উদ্যম ফিরিয়ে আনতে হবে। জার্মান দলে চমৎকার কিছু তরুণ খেলোয়াড়ের সঙ্গে কয়েকজন অভিজ্ঞ সেরা খেলোয়াড়ও আছে। মাঠে তাদের দক্ষতার প্রমাণ দিতে হবে। একটি দল হওয়ার মূলমন্ত্রটি আমার এখনও মনে আছে- ‘সবার আগে দল।’ প্রত্যেক খেলোয়াড় যদি তাদের সেরা খেলাটা দিতে পারে, দল তাতে উপকৃত হবে।

প্রশ্ন: এবার বিশ্বকাপে কি কোনো চমক থাকতে পারে?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: যে কোনো বিশ্বকাপে কিছু দল থাকে, যা আপনাকে ভাবিয়ে তুলতে পারে। তারা যে কোনো কিছু ঘটাতে পারে। এমনকি তারা বড় দলগুলোকেও হারাতে পারে।

প্রশ্ন: কোন খেলোয়াড় এবারের বিশ্বকাপে বেশি চমক দেখাতে পারে বলে মনে হয়?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: সহজ কথায় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো আর লিওনেল মেসি। তবে প্রত্যেক দলেই কিছু বিশেষ তারকা খেলোয়াড় রয়েছে। শুধু গতানুগতিক তারকাদের নিয়ে ভাবা উচিত নয়। প্রত্যেক দলে অবিশ্বাস্য কিছু খেলোয়াড় রয়েছে, তাদেরকেও মূল্যায়ন করা উচিত।

প্রশ্ন: রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে আপনার প্রত্যাশা কী?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: অসাধারণ কিছু ঘটতে যাচ্ছে। আমরা কনফেডারেশন কাপে এটি কিছুটা হলেও আঁচ করতে পেরেছি। অনেক তারকাবহুল দল নিয়ে এবার চমৎকার একটি বিশ্বকাপ দেখতে যাচ্ছি।

প্রশ্ন:
আপনার প্রসঙ্গে আসা যাক। আপনি বিশ্বকাপে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলের মালিক। নিজেকে কি একজন আইকন হিসেবে দেখেন?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: আমি নিজেকে একজন আইকন হিসেবে দেখি না। তবে নিশ্চিতভাবে এটা ভালো একটি জিনিস। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ১৬ গোল করা স্বপ্নের মতোই। আমি আমার দলকে কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই, তারা ছাড়া এটা কখনোই সম্ভব ছিল না।

প্রশ্ন: এই রেকর্ড কি কেউ ভাঙতে পারবে?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: এখন কিছু অসাধারণ খেলোয়াড় রয়েছে। এ বিশ্বকাপেই হয়তো ভাঙবে আমার রেকর্ড। তবে আমি অপেক্ষা করব। দেখি কী হয়! কেউ রেকর্ড ভাঙলে আমি নারাজ হবো না। আমি রেকর্ড ধরে রাখার লোক নই।

প্রশ্ন: গত বিশ্বকাপে স্বাগতিক ব্রাজিলের বিপক্ষে ৭-১ গোলে জয়ের ম্যাচটিতে নিজের ১৬তম গোলটি করেছিলেন…

মিরোস্লাভ ক্লোসা: সেটা চমৎকার। আমাকে প্রায়ই জিজ্ঞেস করা হয়, আমার সেই গোলটি করার কী দরকার ছিল? ব্রাজিলের গোলকিপার প্রথমে এটি ঠেকালেও পরে গোল হয়েছে। এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ ছিল। ব্রাজিলে ভালো খেলতে পারা এবং গোল করতে পারাটা আমার জন্য একটি ভালো সুযোগ ছিল, যা সম্ভব হয়েছে দলীয় প্রচেষ্টার কারণে।

প্রশ্ন: বিশ্বকাপে আপনার সবচেয়ে স্মরণীয় স্মৃতি কোনটি?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: নিঃসন্দেহে ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে শিরোপা অর্জন। অনেক মুহূর্তই আমার মনে গেঁথে আছে। আমি যখন ট্রফি উঁচিয়ে ধরেছিলাম, ২০০২ সালে আমার প্রথম বিশ্বকাপের ফাইনালে যাওয়া এবং সেবার সৌদি আরবের বিপক্ষে গ্রুপপর্বের প্রথম ম্যাচ… সবগুলোই আমার মনে পড়ে।

প্রশ্ন: আপনাকে জার্মান দলে অ্যাটাকিং কোচ হিসেবে নতুন ভূমিকায় দেখা যাবে। ২০১৮ বিশ্বকাপে আপনি কী ধরনের স্ট্রাইকার খুঁজছেন?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: ব্যক্তিগতভাবে আমি ডিয়াগো ফোরলানের মতো খেলোয়াড়কে পছন্দ করি। সে একজন পূর্ণাঙ্গ স্ট্রাইকার। রবার্ট লেভানডফস্কিও চমৎকার। একজন স্ট্রাইকার হিসেবে আপনার সেই শক্তি থাকতে হবে- যেন আপনি তিন, চার অথবা পাঁচজন খেলোয়াড়কে অতিক্রম করতে পারেন। এমন গুণ থাকতে হবে, যেন প্রতিপক্ষের খেলোয়াড় আপনার গতিকে আন্দাজ করতে না পারে।

প্রশ্ন: আপনার অবসর ঘোষণার পর দীর্ঘ সময়ের সতীর্থ মেসুত ওজিল লিখেছিল- ‘মিরো তোমার গোলের জন্য ধন্যবাদ। তুমি এখনই একজন কিংবদন্তি।’ আর্সেনাল তারকা নিয়ে আপনার অভিমত কী?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: আমি অনেক টুর্নামেন্ট তার সঙ্গে খেলেছি। সে অত্যন্ত দ্রুতগামী একজন ফুটবলার। তার মতো একজন স্ট্রাইকার যে কোনো দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। ফুটবলে আপনার প্রত্যুৎপন্নমতিতা প্রয়োজন, যা তার মধ্যে আমি দেখেছি।

প্রশ্ন: ওজিলের সঙ্গে তুলনা করা যায়, এমন আর কোনো খেলোয়াড় কি আছে?

মিরোস্লাভ ক্লোসা: তাৎক্ষণিকভাবে জন মাইকাউডের নামই মনে আসছে। ওয়ার্ডার ব্রিমেনে আমি তার সঙ্গে খেলেছি। সেও অত্যন্ত বুদ্ধিমান খেলোয়াড়। আমার দেখা সেরা খেলোয়াড়দের মধ্যে একজন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১০ ঘণ্টা, ০৮ জুন, ২০১৮

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কেএনবি