মোদির শেষ আশাটুকুও নিভে যাবে আজ?

আজ রোববার ভারতে ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের ষষ্ঠ ধাপের ভোট গ্রহণ চলছে। দেশটির উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা, বিহার ও পশ্চিমবঙ্গের ৫৯টি আসনে লড়ছেন বাঘা-বাঘা সব প্রার্থী। ইতিমধ্যেই যে পাঁচটি ধাপের ভোট সম্পন্ন হয়েছে সেগুলোতে এটা স্পষ্ট যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিজেপি এবার আর একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে না।

বিরোধীদলের নেতা কর্মীরা বলছেন, গত পাঁচ ধাপের ভোটের পর মোদি কার্যত এক নিঃস্ব সেনাপতিতে পরিণত হয়েছেন। তার পা ঠক ঠক করে কাঁপছে। জনগণ আজ ভোটের মাধ্যমে তার এমন অবস্থা করবে যে, তার হাঁটুটাই ভেঙে যাবে। ঘুরে দাঁড়াবার আর কোনো উপায়ই থাকবে না তার।

অন্যদিকে বিশ্লেষকরা বলছেন, গত পাঁচটি ধাপের ভোটে মোদি নাজেহাল হয়েছেন সেটা স্পষ্ট। মোদির আবারও ক্ষমতায় বসার শেষ আশাটুকুও নিভে যেতে পারে আজ। যে আভাস মিলছে তাতে আঞ্চলিক দলগুলো খুবই ভালো করছে এবার। আর এই আঞ্চলিক দলগুলো মোদির বিরুদ্ধে একাট্টা হয়েছে। সেক্ষেত্রে মোদির আবারও ক্ষমতায় বসার সম্ভাবনা দিনকে দিন কমছেই।

আজ যে ৫৯টি আসনে নির্বাচন হচ্ছে তার মধ্যে ৪৪টিই বিজেপির দখলে রয়েছে। এছাড়া তৃণমূল কংগ্রেসের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে আটটি আসন। কংগ্রেস ও ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল লোকদলের দুটি আসন রয়েছে। বাকি আসনগুলো অন্য দলগুলোর দখলে। আজ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোট ৯৭৯ জন প্রার্থী।

এর মধ্যে রয়েছেন কেন্দ্র সরকারের মন্ত্রী রাধা মোহন সিং, মানেকা গান্ধী ও হর্ষবর্ধন। এছাড়া বিজেপির অন্য বড় প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন মনোজ তিওয়ারি, মিনাক্ষী লেখি, ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর ও জনপ্রিয় পাঞ্জাবি লোকসংগীতশিল্পী হান্স রাজ হান্স।

কংগ্রেসের বিখ্যাত প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন- দিল্লির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী শিলা দীক্ষিত, জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, সাবেক বক্সার বিজেন্দার সিং। সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব আজমগড় থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের হয়ে লড়ছেন দেব, মিমি, নুসরাতের মতো হার্টথ্রব তারকারা।