অ্যাটর্নিকে শেষবারের মতো সময় দিলেন হাইকোর্ট

বিশেষ ক্ষমতা আইনের একটি মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি করতে অ্যাটর্নি জেনারেলকে শেষ বারের মত সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট। কুমিল্লায় পেট্রোল বোমা মেরে আট বাসযাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় এ মামলা দায়ের করা হয়েছিলো।

এ মামলায় অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম শুনানি করবেন জানিয়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. বশির উল্লাহ দ্বিতীয় দফায় সময় চাইলে বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালত আদেশে বলেন, ‘আগামী রোববার শুনানির জন্য রাখা হলো। শেষবারের মতো সময় দিলাম। ওইদিন অ্যাটর্নি জেনারেল শুনানি না করলে আদেশ দিয়ে দেবো।’ পরে আদালত রোববার পর্যন্ত মুলতবি করা হয়।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন এ জে মোহাম্মদ আলী।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে আদেশ দেন কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ কে এম সামছুল আলম। এ আদেশের বিরুদ্ধে গত ২ অক্টোবর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদন করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

বিএনপির টানা অবরোধ-হরতালের মধ্যে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুর এলাকায় একটি নৈশকোচে পেট্রোল বোমা হামলায় আট যাত্রীর মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে হত্যা ও বিস্ফোরক মামলা করে পুলিশ। পরে পুলিশের আবেদনে বিস্ফোরক আইনের মামলাটি বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় রূপান্তর করা হয়।

প্রসঙ্গত, এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজার রায়ের পর গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়াকে রাখা হয়েছে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে। ওই মামলায় তিনি জামিন পেলেও আরও কয়েকটি মামলার কারণে তার মুক্তি হচ্ছে না। এ কারণে বিশেষ ক্ষমতা আইনের এ মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে জামিনের আবেদন করা হয়েছিল কুমিল্লার বিশেষ আদালতে।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/বিএনকে