বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ব্যবহার করতে পারবে না দেশি এয়ারলাইন্স

বোয়িংয়ের সর্বাধুনিক উড়োজাহাজ ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ পাঁচ মাসের মধ্যে দুটি বিধ্বস্ত হওয়ার বিশ্বের নানা দেশ উড়োজাহাজটি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। সেই উদ্বেগের সূত্র ধরেই ওই মডেলের উড়োজাহাজ দেশে আনার অনুমতি দিবে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। এ সময় পর্যন্ত দেশের কোনো বিমানবন্দরে ম্যাক্স সিরিজের কোনো এয়ারক্রাফটকে অবতরণ ও উড্ডয়নে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে বলে জানায় বেবিচক।

বোয়িংয়ের সর্বাধুনিক ওই উড়োজাহাজ বর্তমানে বাংলাদেশের কোনো বিমান পরিবহন সংস্থার বহরে না থাকলেও সম্প্রতি ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ভাড়ায় একটি ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ এনে ফ্লাইট পরিচালনা করার জন্য চুক্তি করেছে।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের পরিচালক চৌধুরী এম জিয়াউল কবির বলেন, ইন্দোনেশিয়ার লায়ন এয়ার ও ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের দুটি নতুন বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের কোনো এয়ারলাইন্সগুলোকে ওই মডেলের উড়োজাহাজ কেনা বা লিজ নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে না।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি সংবাদ সম্মেলন করে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স দেশে প্রথমবারের মত বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ আনার ঘোষণা দেয়। সেদিন জানানো হয়, লিজিং কোম্পানি এয়ারক্যাপের মাধ্যমে ১২ বছরের জন্য একটি বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ ভাড়া আনছে ইউএস-বাংলা। তবে সেজন্য কোনো সময়সীমা তারা তখন জানায়নি।

ইউএস-বাংলার জনসংযোগ কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম বলেন, এখনই আমরা এ চুক্তি বাতিলের কথা ভাবছি না। যে দুটি ঘটনা ঘটেছে সেগুলোর তদন্ত হচ্ছে। আমরা তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন প্রকাশ হলে সেটি বিবেচনায় নিয়ে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেব। একইসঙ্গে বিভিন্ন দেশের অন্তত পাঁচ হাজার ম্যাক্সের অর্ডার রয়েছে বোয়িংয়ের হাতে। সেগুলো আপাতত স্থগিত করা হলেও বাতিল করা হয়নি।

মার্কিন কোম্পানি বোয়িংয়ের সফল ৭৩৭ সিরিজের সর্বশেষ মডেলটি হচ্ছে ম্যাক্স। বাণিজ্যিকভাবে এ উড়োজাহাজ দিয়ে ফ্লাইট চালানো শুরু হয় ২০১৭ সালে। দুই বছর পর না হতেই প্রথমবারের মত বড় ধরনের দুর্ঘটনায় পড়ে এই উড়োজাহাজ। গত ২৯ অক্টোবর জাকার্তার কাছে জাভা সাগরে লায়ন এয়ারের একটি বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ বিধ্বস্ত হলে ১৮৯ আরোহীর সবাই নিহত হন। এর পাঁচ মাসের মাথায় গত রবিবার ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৫৭ জন আরোহীর সবাই নিহত হলে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ তৈরি হয়।

এ পরিস্থিতিতে চীন, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাজ্য, ভারতসহ অধিকাংশ দেশ এবং অধিকাংশ এয়ারলাইন্স বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ না ওড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।