সিঙ্গাপুরের বাসায় যেভাবে কাটছে ওবায়দুল কাদেরের দিন -রাত!

শুক্রবার দুপুর ১টার পর সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়কমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। হাসপাতাল ছাড়লেও এখনই দেশে ফিরতে পারছেন না ওবায়দুল কাদের। কারণ আরো কিছুদিন চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে নিয়মিত চেকআপে থাকতে হবে তাঁকে। চেকআপ শেষে তারপর দেশে ফিরতে পারবেন তিনি।

এ অবস্থায় সিঙ্গাপুরের একটি বাসায় স্ত্রী বেগম ইশরাতুন্নেসা কাদের ও স্বজনদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন তিনি। সেখানে সময় কাটানোর বেশ কয়েকটি ছবি ও একটি ভিডিও নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করেছেন আওয়ামী লীগের দফতর উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক ইস্কানদার মির্জা শামীম।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের স্ত্রী ও স্বজনদের সঙ্গে কথা বলছেন। এর আগে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরার দিন ভিডিওতে দেখা যায়, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের চারপাশ ঘিরে রেখেছেন অনেকে। তাকে গাড়িতে চড়ার জন্য সহযোগিতা করেন। তবে হেঁটেই গাড়িতে উঠেছেন তিনি। পাশে ছিলেন স্ত্রী বেগম ইশরাতুন্নেসা কাদের।

ভিডিও আরও দেখা যাচ্ছে, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের স্ত্রী পাশে থেকে হাত নাড়াতে বললে তিনি হাত নাড়ান।

প্রসঙ্গত, গত ৩ মার্চ সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি হন ওবায়দুল কাদের।

সেখানে এনজিওগ্রাম পরীক্ষা করার পর তার করোনারি ধমনীতে তিনটি ব্লক পান চিকিৎসকরা। উন্নত চিকিৎসার জন্য পর দিনই তাকে সিঙ্গাপুর নেয়া হয়।

গত ২০ মার্চ মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে মন্ত্রীর বাইপাস সার্জারি সম্পন্ন হয়। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে গত ২৬ মার্চ ওবায়দুল কাদেরকে হাসপাতালের আইসিইউ থেকে কেবিনে নেয়া হয়। দীর্ঘ চিকিৎসা আর জটিল সব অস্ত্রোপচারের ধকল কাটিয়ে ওবায়দুল কাদের এখন বেশ সুস্থ।