‘ভারতের পর জ্বালানি তেলের দাম বাংলাদেশেই সবচেয়ে কম’

ভারতের পর জ্বালানি তেলের দাম বাংলাদেশেই সবচেয়ে কম
জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে জিল বাংলা সুগার মিলের আখচাষি কল্যাণ সমিতি আয়োজিত এক আলোচনাসভায় সভাপতির বক্তব্য দিচ্ছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান - সংগৃহীত ছবি

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলেছেন, “ভারতের পর বাংলাদেশে বিশ্বের সবচেয়ে কম দামে জ্বালানি তেল বিক্রি হচ্ছে। অন্যান্য দেশে জ্বালানি তেলের দাম আরো বেশি। লন্ডনে এক লিটার পেট্রল ৩৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বাংলাদেশ সরকার প্রতি লিটারে ৫০ টাকা ভর্তুকি দিয়ে জ্বালানি বিক্রি করছে।”

তিনি আজ বুধবার সকালে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে জিলবাংলা সুগার মিলের আখচাষি কল্যাণ সমিতি আয়োজিত এক আলোচনাসভায় সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন।

ধর্মপ্রতিমন্ত্রী বলেন, “রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে তেল-গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বেড়েছে। কিছুদিন আগে লন্ডন গিয়েছিলাম, যেখানে চার মাস আগে ১ লিটার পেট্রোলের দাম ছিল ১১০ টাকা। সেটা এখন ৩৮৫ টাকা। বাংলাদেশে ৯০ টাকা থেকে হয়েছে ১৩৫ টাকা। দেশে জালানি তেলের দাম দিগুণ হলেও আন্তর্জাতিক বাজারের তুলনায় বাংলাদেশে দাম এখনো অনেক কম।”

ধর্মপ্রতিমন্ত্রী আরও যুক্ত করেন “রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধ হলে তেল এবং গ্যাসের অভাব মিটে গেলে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম যতই বৃদ্ধি থাকুক না কেন দেশে জ্বালানির দাম স্বাভাবিক পর্যায়ে চলে আসবে।” জনসাধারণকে তিনি ধৈর্য ধারণ করার আহ্বান জানান এবং বিরোধী দলের অপপ্রচারে কান না দিতে পরামর্শ দেন।

চাষি কল্যাণ সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান শিবলীর সঞ্চালনায় এতে আরও বক্তব্য রাখেন জিলবাংলা সুগার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাব্বীক হাসান এবং জিএম (কৃষি) আনোয়ার হোসেন, সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান মোল্লা, হাবিবুর রহমান শাহিন চেয়ারম্যান, তারেক মাহমুদ, এ কে আজাদ প্রমূখ।