ঘোষণা দিয়ে প্রশ্নফাঁস!

প্রশাসনের নাকের ডগায় ঘোষণা দিয়ে পরীক্ষার আগেই সামাজিক মাধ্যমে প্রশ্ন দিচ্ছে বেশ কয়েকটি চক্র। মঙ্গলবার ফেইসবুকে প্রশ্নফাঁস চক্রের দেয়া একটি লিংকের পাওয়া মুঠোফোন নম্বরে কল করে চাওয়া হলো চলমান এস এস সি পরীক্ষার ইংরেজী ২য় পত্রের প্রশ্ন। তাদের কথামতো বুধবার সকাল ৮টার কিছু পরেই ফেইসবুকে পাওয়া গেলো প্রশ্ন। পরীক্ষা শুরুর আগে কেন্দ্রের বাইরে দেখা গেলো একই উপায়ে ফেইসবুক, ইমো, হোয়াটসআপে পাওয়া প্রশ্ন নিয়ে পরীক্ষার্থীদের ব্যস্ততা। অভিভাবকরাও নিজের সন্তানকে সে প্রশ্নের সমাধান করে দিচ্ছেন।

ফেইসবুকে একটু খুঁজলেই প্রশ্নফাঁস চক্রের বিভিন্ন লিংক পাওয়া যাবে খুব সহজেই। এসব লিংকে যোগাযোগ করার নম্বর যেমন রয়েছে, রয়েছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের নম্বরও। কিন্তু প্রশাসন নাকি কাউকেই খুঁজে পায় না। শিক্ষামন্ত্রীর মতো কিছু অসাধু শিক্ষকদের উপর দায় চাপিয়েই ক্ষান্ত দিচ্ছেন তারা।

শিক্ষক নেতারা যদিও বলছেন, শুধু অসাধু শিক্ষক নয়, এর পেছনে কাজ করছে প্রশাসনের কিছু অসাধু সদস্যের পাশাপাশি সরকার বিরোধী চক্র। আর সাইবার নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা বলছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ না করেও চক্রটিকে ধরা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষে খুব সহজেই সম্ভব।
কিন্তু, প্রশাসন কেন এ বিষয়ে দায়সারা দায়িত্ব পালন করছেন, সে উত্তর নেই কারও কাছেই।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৬ ঘণ্টা, ০৯  ফেব্রুয়ারি, ২০১৮

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কেএসপি