ঘাড় যদি হয় কালো, লাগবে কি ভালো?

ধরুন, নিয়মিত রূপচর্চা করেন আপনি। সুন্দর মুখশ্রীর অধিকারীও বটে। কেবল মুখ নয়, সে সঙ্গে যত্ন নেন হাত পায়েরও। কিন্তু, এতকিছুর পরও বাদ থেকে যায় ঘাড়ের মতো একটি অংশ। সুন্দর মুখশ্রীর সঙ্গে কালো দাগে ভরপুর ঘাড়— কেমন লাগবে বলুন তো?

ঘাড়ের কালো দাগ একদিকে যেমন বেমানান লাগে, অন্যদিকে মুখের সোন্দর্যও কমিয়ে দেয়। আর পার্লারে গেলে গুণতে হয় অনেকগুলো টাকা। বিনিময়ে ভালো ফলও পান না অনেকে। তাহলে উপায়?

চাইলেই ঘরোয়া কিছু উপাদানে কম খরচেই ঘাড়ের জেদি কালো দাগ দূর করা সম্ভব। কি, বিশ্বাস হচ্ছে না? তবে চলুন জেনে নেওয়া যাক, ঘাড়ের কালো দাগ দূর করতে কী করতে হবে আপনাকে-

বেসন- ভাজাপোড়া খাবার তৈরিতে বেসন না হলেই নয়। তবে কেবল ভাজার কাজে নয়। ত্বকের জন্যও দারুণ উপকারী এ উপাদানটি। বেসনের সঙ্গে অল্প হলুদ গুঁড়ো আর গোলাপ জল মিশিয়ে বানিয়ে নিন হোমমেড প্যাক। এই মিশ্রণটি ঘাড়ে ম্যাসেজ করে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

টমেটো- ব্রণ, রোদে পোড়াভাব, ডালস্কিন ইত্যাদির জন্য টমেটো বেশ উপকারি। ঘাড়ের দাগ সারাতে এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর উপাদানটি কাজে লাগাতে পারেন। টমেটো আর খানিকটা মধু একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। দাগের জায়গায় লাগিয়ে মিনিট বিশেক পর ধুয়ে ফেলুন।

লেবু- এই উপাদানটিকে বলা হয় ন্যাচারাল ব্লিচ। অলিভ অয়েল আর লেবুর রস মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। প্রতিরাতে ঘুমানোর আগে ঘাড়ে মিশ্রণটি ম্যাসেজ করুন। টানা একমাস ব্যবহারে দাগ হবে উধাও।

দুধ- ঘাড়ের দাগ দূর করতে ব্যবহার করতে পারেন কাঁচা দুধ। লো-ফ্যাটযুক্ত দুধে তুলো ভিজিয়ে দাগের ওপর ঘষুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে নিন। টানা একমাস ব্যবহারে নিজেই বুঝবেন পরিবর্তন।

ঘাড়ের কালো দাগ দেখতে ভীষণ খারাপ লাগে। তাই এই উপাদানগুলো নিয়ম মেনে ব্যবহার করুন আর পান জাদুকরী উপকারিতা। ঘাড়ের পাশাপাশি মুখের ত্বকের জন্যও কিন্তু এই উপাদানগুলো বেশ কার্যকরী।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/বিএনকে