নিজের কেন্দ্রেও এজেন্ট নেই, কী বললেন শাফিন

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপনির্বাচনে মেয়র পদে লাঙল প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন শাফিন আহমেদ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর গুলশানে মানারাত ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেন তিনি। তবে তার নিজের এই কেন্দ্রসহ অন্য দুটি কেন্দ্রে লাঙলের কোনো এজেন্ট নেই এমন খবরই শোনা গেছে।

এ প্রসঙ্গে কথা বলেছেন শাফিন আহমেদ নিজেই। তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমাদের অফিসে কথা বলতে হবে। যারা আয়োজনে ছিলেন তারা মূলত আমার মূল কো-অর্ডিনেটর যে, সে এ ব্যাপারে ভালো বলতে পারবেন। ’ এ সময় শাফিন আহমেদের সঙ্গে থাকা কর্মীরা কেন্দ্রে এজেন্ট থাকার কথা জানান।

পরে সংবাদকর্মীরা মানারাত স্কুল কেন্দ্রসহ নারী কেন্দ্র ৪ ও পুরুষ কেন্দ্র ২ এই তিনটি কেন্দ্রে শাফিন আহমেদের কোনো এজেন্ট না থাকার কথা জানান। ‘কেন নেই’- এ বিষয়ে ব্যাখ্যা চাইলে লাঙলের এই প্রার্থী বলেন, ‘আসলে ব্যাখ্যা দেওয়ার কিছু নেই। আমাদের কর্মীরা কাজ করছে তারাই ভালো বলতে পারবেন। ’

শাফিন আহমেদ বলেন, ‘এই দিনটাতে আমি একটু দেখতে চাই। আমি কেন্দ্রে যাব, সবগুলো কেন্দ্র দেখে আমি একটি সঠিক মতামত দিতে পারবো দিনের শেষে বিকেল বেলা। আসলে আমি সারাদিনের পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে আমার যা বলার সেটা বিকেল বেলা বলবো। ’

কোন কেন্দ্রে আপনি কী রকম অভিযোগ পেয়েছেন এমন এক প্রশ্নর জবাবে এই কণ্ঠশিল্পী বলেন, ‘এটা আমি এখন বলবো না। সব দেখে নিয়ে পরে আমি আপনাদের এটা জানাবো। ’

জয়ের ব্যাপারে কতটা আশাবাদী- এমন এক প্রশ্নের জবাবে শাফিন আহমেদ বলেন, ‘হতাশ হওয়ার এখনও সময় হয়নি। আমি মনে করি দিন মাত্র শুরু হয়েছে। লোকজন আস্তে-ধীরে বের হয়েছেন। আজ ছুটির দিন, আবার বর্ষা-বাদল ছিল। দেখা যাক দিনের বাকিটা সময় কী হয়। ’

ভোটার উপস্থিতি নিয়ে শাফিন আহমেদ বলেন, ‘ভোটার উপস্থিতি লক্ষণীয়ভাবে কম। আমি এর ব্যাখ্যা দিতে পারবো না। তবে আশানুরূপ সাড়া দেখতে পাচ্ছি না ভোটারদের মধ্যে। ’