সুদের টাকায় যারা বড়লোক হয়, তাদের আবার কিসের দেশপ্রেম

পদ্মাসেতু প্রকল্পে অর্থায়ন বন্ধে ষড়যন্ত্র করায় নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ ড. ইউনূসের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যারা গরীবের সুদের টাকায় বড়লোক হয়, তাদের আবার কিসের দেশপ্রেম। তাদের দেশপ্রেম থাকতে পারে না। দেশপ্রেম থাকলে দেশের উন্নয়ন বিরোধী সিদ্ধান্ত নিতে পারতো না। পদ্মাসেতুতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন ঠেকানোর চক্রান্ত করতে পারতো না।

রবিবার (১৪ অক্টোবর) মুন্সিগঞ্জের মাওয়ায় পদ্মা সেতুর নামফলক উন্মোচন ও কয়েকটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রথমে পদ্মাসেতুর কাজ আমি শুরু করেছিলাম। কিন্তু বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় এসে কাজ বন্ধ করে দেয়। পরে ফের ক্ষমতায় এসে কাজ শুরু করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুর ৬০ ভাগ কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। যা খুবই গৌরবের। দ্রুত গতিতে কাজ এগিয়ে চলছে। শিগগিরই এ সেতুর সুফল জনগণ ভোগ করবেন।

তিনি বলেন, নিচে রেল ও ওপরে সেতু এমন একটি ডিজাইন তিনি অনুমোদন করেন। তখন বিশ্বব্যাংকসহ অনেকে এগিয়ে এসেছিল কাজটি করার জন্য। কিন্তু দেশের কিছু মানুষ আছে, যারা দেশের স্বার্থ দেখেন না।

গ্রামীণ ব্যাংক মানুষকে ক্ষুদ্র ঋণ দিত, উচ্চাহারে সুদ নিত জানিয়ে তিনি বলেন, ১৯৮৫-৮৬ সাল থেকে ড. ইউনুসের সঙ্গে আমার পরিচয়। তখন তাকে সহায়তা করেছিলাম। তিনি বলেছিলেন, তাকে যদি একটি ফোনের অনুমোদন দেয়া হয়, তবে তার লাভ দিয়ে গ্রামীণ মানুষের উপকার করতে পারতেন। কিন্তু ওই ফোনের কোনো লভ্যাংশ গ্রামীণ ব্যাংক পায়নি।

৯৮ সালে ব্যাংকটি বিপদে পড়লে চারশ কোটি টাকা সহায়তা দেয়ার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, গ্রামীণ ব্যাংকের আইনে কোনো ব্যক্তি ৬৯ বছর পর্যন্ত এমডি থাকতে পারবেন। কিন্তু অনুমোদন ছাড়াই ড. ইউনুস ১০ বছর এমডির পদ দখল করে রাখেন ও সরকারি বেতন তিনি নিতেন।

‘তখন তাকে নোটিশ দেয়া হয়, তিনি আইনের ব্যত্যয় ঘটিয়ে এমডি পদ দখল করে রেখেছেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, তাকে কখনো অসম্মান করতে চাইনি, তার সঙ্গে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও গওহর রিজভী গিয়ে দেখা করে তাকে গ্রামীণ ব্যাংকের উপদেষ্টা করে রাখার প্রস্তাব দেন। তিনি তা না মেনে দুটি মামলা করলেন। কিন্তু আইনে দেখা গেল, ষাট বচরের বেশি তিনি এমডি থাকতে পারেন না।

‘ইচ্ছা করলে অবৈধভাবে নেয়া তার ১০ বছরের বেতন নিয়ে নিতে পারত আদালত । আদালত তা নেননি। কিন্তু ড. ইউনুস ক্ষেপে গেলেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ইউনুসকে গ্রামীণ ব্যাংকের এমডি পদে রাখতে তখনকার মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিলারি ক্লিনটন ফোন করেছেন, ব্রিটেনের শেরি ব্লেয়ার ফোন করলেন। কিন্তু আমরা বলেছি, এটা আইনে নেই। আইনে পড়ে না। তাকে সম্মান রক্ষার প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল, সেই সম্মান তিনি রক্ষা করেননি’।

‍‘পদ্মাসেতুতে দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ করলেও কোনো প্রমাণ দিতে পারেনি বিশ্বব্যাংক।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘তখন আমেরিকার স্টেট ডিপার্টমেন্ট থেকে এসে হুমকি দেয়া হত, ই্উনুসকে এমডি না রাখলে পদ্মাসেতুতে হেল্প করা হবে না। পরবর্তীতে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু করার সিদ্ধান্ত নেই’।

এসময় বিস্ময় প্রকাশ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘যিনি নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন, তাকে কেন একটা ব্যাংকের এমডি থাকতে হবে’।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে পদ্মাসেতুর মাওয়া প্রান্তে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। সকাল ১১টার কিছু সময় পর পদ্মা সেতু নাম রেখেই সেতুর নামফলক উন্মোচন ও প্রকল্পগুলোর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় তিনি মূল নদীশাসন কাজ সংলগ্ন স্থায়ী নদীতীর প্রতিরক্ষামূলক কাজেরও উদ্বোধন করেছেন। উদ্বোধন শেষে মোনাজাতে অংশ নেন তিনি।

জাজিরা ও মাওয়ার মধ্যে ৬ দশমিক ১ কিলোমিটার দীর্ঘ সেতুর বেশ কিছু অংশ এরই মধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে। জাজিরায় পাঁচটি ও মাওয়ায় একটি স্প্যান বসানো হয়েছে। পুরো প্রকল্পে ব্যয় হচ্ছে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি ৩৮ লাখ ৭৬ হাজার টাকা।

দোতলা কাঠামোর এ সেতুর ওপর দিয়ে চলবে গাড়ি, নিচ দিয়ে চলবে ট্রেন। ঢাকা থেকে মাওয়া হয়ে পদ্মা নদীর ওপর দিয়ে রেলপথ হবে। পদ্মা সেতুর রেল সংযোগে ব্যয় হচ্ছে প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকা।

দেশে প্রথমবারের মতো পদ্মা সেতু হয়ে ছয় লেনের এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। ঢাকা থেকে মাওয়া হয়ে ভাঙ্গা পর্যন্ত ৫৫ কিলোমিটার এক্সপ্রেসওয়ের কাজ এগিয়েছে ৭০ শতাংশ। প্রধানমন্ত্রী নিজের চোখে আজ এ প্রকল্পের অগ্রগতি দেখছেন।

পদ্মা সেতু প্রকল্প পরিদর্শনের সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক, নৌমন্ত্রী শাজাহান খান, বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল ও সেনা বাহিনী প্রধানসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পি