১৬ বছর ধরে বিনামূলে গলায় আটকে থাকা মাছের কাঁটার চিকিৎসা দিচ্ছেন তিনি

মাছ আমাদের অনেকেরই প্রিয় খাবার। মাছ খেতে গিয়ে যখন-তখন গলায় কাঁটা আটকে যাওয়াও যেন দৈনন্দিন ঘটনা। বিভিন্ন ধরনের পদ্ধতি অবলম্বন করে মাছের কাঁটা থেকে মুক্তি পাওয়ার চেষ্টা করে মানুষ। কারো গলা থেকে কাঁটা চলে যায়, আবার কারো আটকে থাকে।

সিলেটের ওসমানীনগর থানার উসমানপুর ইউনিয়নের ব্রাক্ষ্মণ শাসন গ্রামের মৃত ইসরাঈল আলীর ছেলে মো. শিব্বির আহমদ। দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে গলায় আটকে থাকা মাছের কাঁটার সমাধান করে যাচ্ছেন শিব্বির। ২০০২ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে মানুষকে সেবা প্রদানের কাজ শুরু করেন শিব্বির। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি এই সেবা প্রদানের ১৬ বছর পূর্ণ করছেন তিনি।

এই দীর্ঘ সময়ে কারো কাছ থেকে কোনো টাকা বা সুবিধা গ্রহণ ছাড়াই বিনামূলে সেবা দিচ্ছেন শিব্বির আহমদ। এ বিষয়ে শিব্বির আহমদ বলেন, ‘আমি উছিলা করি, সমাধান দেন আল্লাহ।’

তিনি জানান, কারো গলায় মাছের কাঁটা আটকে গেলে তাকে (শিব্বির) ফোন করতে পারেন। তবে যার গলায় কাঁটা আটকাবে, তাকেই ফোন করতে হবে; অন্য কেউ ফোন করলে কিংবা কল দিয়ে কনফারেন্সের মাধ্যমে কাঁটা আটকানোর বিষয় জানালে হবে না।

শিব্বিরের সাথে বিশ্বের যে কোনো স্থান থেকে +৮৮ ০১৭১৬ ৮৭১ ৯৪২ এই নাম্বারে যোগাযোগ করা যাবে। এছাড়া ফেসবুকে ‘শিব্বির আহমদ’ নাম লিখে অথবা ওই নাম্বার লিখে সার্চ দিলে তার আইডি পাওয়া যাবে।
আলাপকালে শিব্বির আহমদ বলেন, ‘আমার আব্বা মানুষের গলায় কাঁটা লাগলে তা সারাতে পারতেন। আব্বার কাছ থেকে আমি এ বিষয়টি শিখেছি। তিনি আমাকে নিষেধ করেছিলেন, যাতে এ সেবা দিয়ে কারো কাছ থেকে টাকা না নেই। তার নিষেধাজ্ঞা আমি মেনে চলছি।’

এদিকে, সেবামূলক কাজের জন্য প্রশংসিত হচ্ছেন শিব্বির আহমদ। ইতিমধ্যে দুটি সংগঠন তাকে সংবর্ধনা প্রদান করেছে।

আগামীতেও মানুষকে এই সেবা প্রদান করে যেতে চান শিব্বির। তিনি সকলের কাছে এজন্য দোয়া চেয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২০০ ঘণ্টা, ১৩ ফেব্রুয়ারি , ২০১৮

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এস