বিউটিশিয়ানকে ধর্ষণ মামলায় দুই শিক্ষার্থী কারাগারে

বিউটিশিয়ানকে ধর্ষণ মামলায় দুই শিক্ষার্থী কারাগারে

রাজধানীর শুক্রাবাদে এক বিউটিশিয়ানকে বাসায় ডেকে ধর্ষণের মামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীর দুই দিনের রিমান্ড শেষে আদালত তাদেরকে কারাগারে পাঠিয়েছেন। আজ সোমবার এ আদেশ দেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইসলাম।

কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন, মো. রিয়াদ (২৪) ও ইয়াছিন হোসেন ওরফে সিয়াম (২৩)। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম আসামিদের আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। গত বুধবার রাতে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। এরপর গত ১৪ অক্টোবর আদালত আসামিদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে পুলিশ।

মামলা থেকে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার ওই নারী সাভারে থাকতেন। একটি অনলাইন পেজের মাধ্যমে তিনি বাসায় গিয়ে নারীদের ফেসিয়াল করিয়ে দিতেন। পেজে দেওয়া নাম্বারে গত ১১ অক্টোবর এক মেয়ে কণ্ঠের মাধ্যমে ওই বিউটিশিয়ানকে ফোন দেওয়া হয়। এ সময় জানানো হয় শুক্রাবাদ এলাকায় ফেসিয়াল সেবা দিতে হবে। পরে সেই তথ্যের ভিত্তিতে সাভার থেকে বিউটিশিয়ান ওই নারী শুক্রাবাদের উদ্দেশে রওনা হন। এ সময় ছেলে কণ্ঠে রিয়াদ তার অবস্থান সম্পর্কে ফোনে বারবার জানতে চাচ্ছিল। সন্ধ্যার পর ওই নারীকে রিয়াদ শুক্রাবাদ থেকে রিসিভ করে তার ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। এ সময় ওই বাসায় রিয়াদ, তার বন্ধু সিয়াম ও জিতু ছাড়া কেউ ছিল না। এ সময় তারা তিন জন মিলে ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের পর সেই নারীকে রাস্তায় একটি সিএনজিতে তুলে দেন তারা।