ওমর সানিকে গুলি করার হুমকি নিয়ে জায়েদ খান যা বললেন

ওমর সানিকে গুলি করার হুমকি নিয়ে জায়েদ খান যা বললেন
জায়েদ খান - ফাইল ছবি

অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে ওমর সানি ও জায়েদ খানের ঝগড়া হয়েছে। এ সময় জায়েদকে চড় মারেন ওমর সানি। ক্ষেপে গিয়ে জায়েদ খান পিস্তল বের করে ওমর সানিকে গুলি করার হুমকি দেন।

গত ১০ জুন শুক্রবার রাতে ঘটা এ ঘটনাটি শনিবার দিনভর ছিল আলোচনায়। চাপা উত্তেজনাও ছিল চলচ্চিত্রপাড়ায়।

তবে জায়েদ খান ঘটনাটি সম্পূর্ণ বানোয়াট বলে দাবি করলেন। তিনি গতকাল শনিবার রাত ১২টার দিকে বলেন, ‘বিয়ের অনুষ্ঠানটি হয়েছে বসুন্ধরার কনভেনশন সেন্টারে। এর ভেতরে কোনো রকমের অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ নিষেধ। সেই সুযোগ নেই। তাহলে আমার কাছে পিস্তল আসবে কোথা থেকে?’

‘আমাকে অপমান করতে এসব গল্প বানানো হয়েছে। আমার কথা বিশ্বাস না হলে দয়া করে এটা আপনি বসুন্ধরা কনভেনশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করলেই জানতে পারবেন।’

জায়েদ খান আরও বলেন, ‘তাছাড়া আমি অনুষ্ঠানের পুরোটা সময় ডিপজল ভাইয়ের সঙ্গে ছিলাম। আপনি ডিপজল ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেও জানতে পারবেন। আমার বিরুদ্ধে নতুন ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ওমর সানি ভাই আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা বলছেন। এ রকম কোনো ঘটনা ঘটেনি।’

এদিকে নানা সূত্রে জানা গেছে, অনেকদিন ধরেই অভিনেত্রী মৌসুমীকে বিরক্ত করছিলেন অভিনেতা জায়েদ খান। এ নিয়ে দ্বন্দ্ব হয় মৌসুমীর স্বামী ওমর সানির সঙ্গে। ওমর সানি এ নিয়ে ডিপজলের কাছে নালিশও দিয়েছিলেন।

ডিপজল সানিকে আশ্বস্ত করেছিলেন জায়েদ আর মৌসুমীকে বিরক্ত করবে না। কিন্তু জায়েদ শোধরাননি। তাই তার উপর রেগে ছিলেন ওমর সানি৷ ডিপজলের ছেলের বিয়েতে জায়েদকে পাবেন নিশ্চিত হয়ে সেখানে যান তিনি।

বিয়েতে জায়েদকে পেয়েই চড় মেরে বসেন ওমর সানি৷ তখন ক্ষেপে গিয়ে প্রকাশ্যে পিস্তল বের করে ওমর সানিকে গুলি করে দেয়ার হুমকি দেন।

বিষয়টি নিয়ে ওমর সানি মুখ খুলেছেন। তিনি বলেন, ‘ঘটনা সত্যি৷ এ নিয়ে আমি এখন কথা বলার মুডে নাই। কাল (রোববার) কথা বলবো।’

অন্যদিকে ডিপজল গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘আমি এসব জানি না। একটু ধাক্কাধাক্কি হয়েছে। এসব ব্যাপারে আমার কোনো কিছু বলার ইচ্ছা নেই। আমি বিয়ে নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম, এর বেশি কিছু জানি না।’

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানান, ওমর সানীকে পিস্তল বের করে গুলি করার হুমকি দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র অঙ্গনের অনেকেই। জায়েদ খান পিস্তল বের করে ওমর সানিকে হুমকি দেয়ায় বিস্মিত ও হতবাক হয়েছেন অই সময় বিয়ের অনুষ্ঠানে থাকা চলচ্চিত্রের কয়েকজন জ্যেষ্ঠ অভিনয়শিল্পী।