বাংলাদেশ-ভুটান পিটিএ সই হচ্ছে আগামী ৬ ডিসেম্বর

bhutan and bangladeshi flag

আগামী ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ) সই হচ্ছে। বাংলাদেশকে ভুটানের স্বাধীনতার স্বীকৃতি দেওয়ার দিনেই দুই দেশের বাণিজ্যমন্ত্রী এই অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি সই করবেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র এ তথ্য জানায়।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে অগ্রাধিকারমূলক দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তি সইয়ের চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আগামী ৬ ডিসেম্বর দুই দেশের মধ্যে এই চুক্তি সই হবে। এ চুক্তি সইয়ের ফলে বাংলাদেশের ১০০টি পণ্য ভুটানে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার পাবে। আর ভুটানের ৩৪টি পণ্য বাংলাদেশে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার সুবিধা পাবে। পরে আলোচনার মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে পণ্য সংখ্যা বাড়ানো হবে।

১৯৭১ সালে ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশকে স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশ হিসেবে প্রথম স্বীকৃতি দেয় ভুটান। সেজন্য দু’দেশের মধ্যে ঐতিহাসিক সম্পর্ক রয়েছে। আর এই ঐতিহাসিক দিন সামনে রেখে ৬ ডিসেম্বর চুক্তি সই হতে চলেছে। বাংলাদেশ-ভুটানের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ধীরে ধীরে বাড়ছে। ২০১২-১৩ অর্থবছরে দু’দেশের বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ২৬ দশমিক ৫২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। আর ২০১৮-১৯ অর্থবছরে তা থেকে বেড়ে ৫৭ দশমিক ৯০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়।

বাংলাদেশ তৈরি পোশাক, খাদ্যসামগ্রী, প্লাস্টিক, ওষুধ, গৃহসজ্জাসামগ্রী, ইলেকট্রিক্যাল সামগ্রী ভুটানে রপ্তানি করে। আর ভুটান থেকে বোল্ডার পাথর, সবজি-ফলমূল, নির্মাণসামগ্রী, কেমিক্যালস ইত্যাদি পণ্য আমদানি করে বাংলাদেশ।