মাছ-শুঁটকি নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় গেলো ট্রেন

Chittagong

মাছ-শুঁটকিসহ অন্যান্য মালামাল নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় গেছে তৃতীয় পার্সেল ট্রেন। পার্সেল ট্রেনে কাঁচামালও যাচ্ছে বলে রেলওয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

শনিবার (৩ মে) সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায় ট্রেনটি।

ঢাকা-চট্টগ্রাম-ঢাকা, ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ-ঢাকা এবং খুলনা-ঢাকা-খুলনা রুটে তিন জোড়া পার্সেল ট্রেন পরিচালনার সিদ্ধান্ত হওয়ার পর শুক্রবার চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় যায় প্রথম পার্সেল ট্রেন। পরেরদিন ১০ পিস ফার্নিচার এবং এক বান্ডেল প্লাস্টিক পাইপ নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় যায় দ্বিতীয় পার্সেল ট্রেন। ট্রেনটিতে ৬টি বগির মধ্যে ৪টিতে কোনো মালামাল ছিলো না।

তবে তৃতীয় দিন ট্রেনের সবগুলো বগিতে মালামাল ভর্তি ছিল বলে রেলওয়ের কর্মকর্তারা দাবি করেন।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনের ব্যবস্থাপক রতন কুমার চৌধুরী বলেন, তৃতীয় পার্সেল ট্রেনে পাঁচ বস্তা শুঁটকি, দুই কাটন মাছ, দুই বস্তা ঝাড়ুসহ অন্যান্য মালামাল লাঙ্গলকোট, নরসিংদী ও ঢাকায় যাচ্ছে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম-ঢাকা ও ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) রুটে সপ্তাহে সাতদিন এ পার্সেল ট্রেন চলবে। আর যশোর-ঢাকা রুটে চলবে সপ্তাহে তিনদিন।

পার্সেল ট্রেন প্রতিদিন চট্টগ্রাম থেকে সকাল ১০টায় ছেড়ে ঢাকায় পৌঁছাবে বিকেল ৪টায়। আবার ঢাকা থেকে রাত ১০টায় চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। পথে গুরুত্বপূর্ণ সব স্টেশনে থামবে এ পার্সেল এক্সপ্রেস ট্রেন।