করোনা ভেবে তিন হাসপাতালে ভর্তি নেয়নি, ছেলের সামনে বাবার মৃত্যু

Chittagong Medical College Hospital

তিন হাসপাতালে অসুস্থ বাবাকে নিয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন ছেলে অভিজিৎ। করোনা ভেবে কোনো হাসপাতালেই ভর্তি করানো যায়নি। শেষ পর্যন্ত চিকিৎসা না পেয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ৬২ বছর বয়সী প্রীতি বিকাশ দত্ত।

চট্টগ্রামের দক্ষিণ নালাপাড়া এলাকায় সপরিবারে থাকতেন প্রীতি বিকাশ দত্ত। বুধবার রাত সাড়ে আটটায় হঠাৎ তার বুকে ব্যাথা উঠলে ছেলে অভিজিৎ দত্ত বাবাকে নিয়ে হাসপাতালের উদ্দেশে বের হন। বন্ধুর বাবার অসুস্থতার খবর শুনে মানবাধিকার কমিশনের ফ্রী অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের ব্যবস্থা করেন অভিজিতের বন্ধু অজয়।

চট্টগ্রামের মা-মনি হাসপাতাল, ম্যাক্স, ন্যাশনাল হাসপাতাল ঘুরেও মিলেনি চিকিৎসা। পরে বাধ্য হয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু জরুরি বিভাগে নিয়ে যেতেই মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

অভিজিতের বন্ধু বিজয় বলেন, বন্ধুর বাবা অসুস্থ হওয়ার খবর পেয়ে আমি একটি অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা করে দিই। তারা অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে তিনটি হাসপাতালে ঘুরেছেন। কোনো হাসপাতালে তার বাবাকে ভর্তি করানো হয়নি। পরে চমেক হাসপাতালের নিয়ে যাওয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, করোনার অজুহাতে চিকিৎসা দেয়নি হাসপাতালগুলো। কিন্তু ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে করোনা পরীক্ষায় ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। হাসপাতালগুলোর এমন অপারগতা প্রশ্নবিদ্ধ করেছে চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যসেবাকে।