চট্টগ্রামে পুলিশকে ছুরি মেরে পালানোর চেষ্টা ছিনতাইকারীর

Doublemooring Model Thana

বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর চট্টগ্রামে ছিনতাইকারীকে হাতেনাতে ধরে ফেলায় পুলিশ সদস্যকে ছুরিকাঘাত করে পালানোর চেষ্টা করেছে এক ছিনতাইকারী। পরে স্থানীয়রা তাকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

এ সময় ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করে পুলিশ। মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চট্টগ্রাম নগরের ডবলমুরিং মডেল থানার আগ্রাবাদ বাদামতলির এলাকায় জনতা ব্যাংকের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহত পুলিশ সদস্য চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে কর্মরত সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কামাল আদনান।

ছিনতাইকারীর নাম রাজু আহমেদ সুমন (২০)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, এএসআই কামাল আদনান মোটরসাইকেলে করে স্ত্রীকে নিয়ে বারিক বিল্ডিংয়ের দিকে যাচ্ছিলেন। হোটেল সেন্টমার্টিনের অদূরে জনতা ব্যাংকের সামনে পৌঁছানোর পর মোটরসাইকেলের পেছনে বসা স্ত্রীর গলা থেকে স্বর্ণের চেইন টেনে নিয়ে যায় এক ছিনতাইকারী। স্ত্রীর চিৎকার শুনে মোটরসাইকেল থামিয়ে ওই পুলিশ সদস্য ছিনতাইকারীকে ধাওয়া দেন। এক পর্যায়ে ছিনাতাইকারীকে ধরতে সক্ষম হন। এ সময় ছিনতাইকারী ছুরি বের করে পুলিশ সদস্য কামালের বাম হাতে আঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয়রা ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

ডবলমুরিং থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. তারেক জানান, এএসআই কামালের স্ত্রীর কাছ থেকে ছিনতাই করা স্বর্ণের চেইনটি উদ্ধার করা হয়েছে। ছিনতাইকারী থানায় আটক রয়েছে। তার কাছ থেকে একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক হামিদ হোসেন জানান, রাত ৯টার দিকে ডবলমুরিং থানা এলাকায় ছুরিকাঘাতে আহত এক পুলিশ সদস্যকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে বাসায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়।