গুলশানে ফ্ল্যাট থেকে কলেজছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার

মৃত মোসারাত জাহান মুনিয়া - ইন্টারনেট সংগৃহীত ছবি

রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাতে মোসারাত জাহান মুনিয়া নামে ওই ছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। কুমিল্লা জেলায় তার গ্রামের বাড়ি। একাই থাকতেন তিনি ওই ফ্ল্যাটে। সার্ভিস চার্জসহ ফ্ল্যাটের মাসিক ভাড়া এক লাখ ১১ হাজার টাকার মতো বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, মুনিয়া কুমিল্লায় তার বোনকে ফোন দিয়ে বলেছিল সে ‘ঝামেলা’য় আছে। তার বোন তখন ঢাকায় সেই ফ্ল্যাটে আসেন। ভেতর থেকে দরজা না খোলায়, ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে ভেতরে যাওয়ার পর সিলিং ফ্যানের সঙ্গে মুনিয়ার মরদেহ ঝুলতে দেখা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

পুলিশের গুলশান বিভাগের ডেপুটি কমিশনার সুদীপ চক্রবর্তী বলেন, “প্রাথমিকভাবে পুলিশ জানতে পেরেছে মুনিয়া দেশের একটি বৃহৎ শিল্পপ্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) পরিচিত। তিনি প্রায়ই সেখানে আসতেন।”

গুলশান থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক ওয়ালিউর রহমান বলেন, “মৃতের বোন নুসরাত জাহান আজ মঙ্গলবার ভোরে ‘আত্মহত্যায় প্ররোচিত’ করার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন।”

উপ-পরিদর্শক ওয়ালিউর মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম উল্লেখ করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলতে বলেছেন। অপর এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, সেই এমডি মামলার একমাত্র অভিযুক্ত।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান মামলার তদন্ত করছেন।