সাতক্ষীরায় শোবার ঘরে একই পরিবারের চারজনকে হত্যা

Satkhira

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলসি গ্রামে একই পরিবারের চারজনকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) ভোররাতে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন খলসি গ্রামের শাহাজান আলীর ছেলে হ্যাচারি মালিক শাহিনুর রহমান (৪০), তাঁর স্ত্রী সাবিনা খাতুন (৩০), ছেলে সিয়াম হোসেন মাহি (৯) ও মেয়ে তাসনিম (৬)। তবে অক্ষত আছে নিহত শাহিনুরের চার মাসের সন্তান।

নিহতদের পরিবার সূত্র জানায়, বাড়িটিতে মা ও বড় ভাইয়ের পরিবারের পাঁচ সদস্যসহ সাতজন থাকতেন। মা কাল আত্মীয়ের বাড়িতে ছিলেন। নিহত শাহিনুর রহমানের ছোট ভাই রায়হানুল ইসলাম ছিলেন পাশের ঘরে। ভোরে পাশের ঘর থেকে বাচ্চাদের গোঙানির শব্দ শুনতে পান রায়হানুল। তিনি ঘরের দিকে গিয়ে দেখেন দরজা বাইরে থেকে বন্ধ। দরজা খুলে দেখেন তাঁর ভাই-ভাবির রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে আছে। এর কিছুক্ষণ পর বাচ্চারাও মারা যায়। তবে শাহিনুরের চার মাস বয়সী সন্তান মারিয়া অক্ষত আছে।

রায়হানুল জানান, তাদের সঙ্গে জমি-জায়গা নিয়ে পাশের কিছু লোকের বিরোধ রয়েছে। কিন্তু কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা অস্পষ্ট।

কলারোয়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ঘটনাস্থল থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, নিজেদের ঘরের মধ্যে গৃহকর্তা শাহিনুর রহমানসহ চার জনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। এদের মধ্যে শাহিনুরের পা বাধা ছিল এবং তাদের চিলে কোঠার দরজা খোলা ছিল।

এসআই মফিজুল আরো বলেন, ছাদের চিলে কোঠার দরজা দিয়ে হত্যাকারীরা ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে কাজ শুরু করেছে পুলিশ।