সহকর্মীর করোনায় মৃত্যুর খবর পড়তে গিয়ে কেঁদে ফেললেন সংবাদ পাঠিকা

সহযোগী প্রযোজক রিফাত সুলতানা ও সংবাদ পাঠিকা ফাতিমা আমিন

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল একাত্তর টিভির সহযোগী প্রযোজক রিফাত সুলতানা (৩২) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তিনি গতকাল শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান।

৭১ টিভির সংবাদ পাঠিকা ফাতিমা আমিন তার সহকর্মীর মৃত্যুর খবর পাঠ করতে গিয়ে কেঁদে ফেললেন। ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় ফাতিমা আমিনের সংবাদ পাঠের সেই ভিডিও ক্লিপটি। যেখানে দেখা যায়, সহকর্মী রিফাত সুলতানার মৃত্যুর খবর পাঠ করার সময় চোখ থেকে পানি গড়িয়ে পড়ছিল সংবাদ পাঠিকা ফাতিমার। সংবাদটি পাঠ করার সময় তার গলা ধরে এলেও তিনি থেমে থেমে শেষ পর্যন্ত সংবাদটি পড়ে শেষ করেন।

একাত্তর টেলিভিশনের একজন প্রতিনিধি বলেন, একাত্তর টেলিভিশনের শুরু থেকেই রিফাত সুলতানা সেখানে কর্মরত ছিলেন। একাত্তর টেলিভিশনে যোগদানের পর তার বিয়ে ও যমজ দুই ছেলের জন্ম হয়। তার যমজ ছেলের বয়স দুই বছর।

রিফাত করোনা পজিটিভ ও গর্ভবতী ছিল। এক সপ্তাহ ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন জানিয়ে রিফাতের সহকর্মী ফারজানা রূপা বলেন, “প্রথমে আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে, পরে সেখান থেকে মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। এরপর সেখান থেকে উত্তরার কেসি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সেখান থেকে তাকে ইম্পালস হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।” আজ সকালে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। সেখানেই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। কন্যাসন্তানটি এখন আরেক বেসরকারি এভার কেয়ার হাসপাতালে রয়েছে। বিকাল তিনটা থেকে সাড়ে তিনটার দিকে তার কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়। এরপর বিকাল পাঁচটার দিকে তার মৃত্যু হয় বলে চিকিৎসকরা জানান।”