ফরিদপুরে এক টাকা দেনমোহরে বিয়ে সম্পন্ন!

ফেসবুক সংগৃহীত ছবি

এটি কোনো চলচ্চিত্রের ঘটনা নয়। ফরিদপুরে একটি বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে এক টাকা দেনমোহরে। শুক্রবার দুপুরে শহরের ঝিলটুলী মহল্লার মেজবান পার্টি সেন্টারে কনের দাবির মুখে এবং কনের পরিবারের প্রস্তাবে এক টাকার দেনমোহরে কাবিন সম্পন্ন হয়। কনে বিপাশা আজিজ হলেন দারীপুরের সাহেবের চর মহল্লার বাসিন্দা আজিজুল হক ও নাসরিন সুলতানা দম্পতির একমাত্র মেয়ে। বিপাশা ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা। তবে বর্তমানে এই দম্পতি ফরিদপুর শহরের আলীপুর মহল্লায় থাকেন।

বর আশীকুজ্জামান চৌধুরী হলেন ফরিদপুর শহরের কুঠিবাড়ি কমলাপুর মহল্লার বাসিন্দা আসাদুজ্জামান চৌধুরী ও তাহমিনা চৌধুরী দম্পতির ছেলে। আশীকুজ্জামান ব্যবসা করেন। অনুষ্ঠানে আসা বর-কনের আত্মীয়-স্বজন জানান, আর্থিকভাবে স্বচ্ছল হওয়ার কারণে কনে আগে থেকেই ঠিক করে রেখেছিলেন তার বিয়ের কাবিনে দেনমোহর ধরা হবে এক টাকা। তবে কাজী প্রথমে দেনমোহর হিসেবে দুই লাখ টাকা লেখেন। এটা জানার পর মেয়ের মা ও মেয়ের সিদ্ধান্ত জানিয়ে এক টাকা দেনমোহর ধার্য করা হয়।

বিয়েতে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আসা ফরিদপুরের সামাজিক ফোরাম নাগরিক মঞ্চের সভাপতি আওলাদ হোসেন বলেন, সাধারণত দেখা যায় কনেপক্ষই দর-কষাকষি করে কাবিনের সময় দেনমোহর বাড়িয়ে থাকেন। সে ক্ষেত্রে এটি একটি ব্যতিক্রম ঘটনা। পাশাপাশি আর্থিকভাবে সচ্ছল এক নারীর আত্মমর্যাদা রক্ষার দৃষ্টান্তও বটে। এ বিষয়ে বর আশীকুজ্জামান চৌধুরী বলেন, কনে যা চেয়েছে তাকে স্বাগত জানিয়েছি।