গফরগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু

papiya

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে মক্তবে পড়ে বাড়ি ফেরার পথে পাপিয়া আক্তার (৮) নামে এক শিশু ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চাপায় গুরুতর আহত হয়। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যায়। আজ রবিবার সকালে উপজেলার সালটিয়া ইউনিয়নের ধামাইল গ্রামে গফরগাঁও-বরমী সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন চালকসহ অটোরিকশা আটক করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সালটিয়া ইউনিয়নের ধামাইল পূর্ব পাড়া গ্রামের হাইদুল ইসলামের মেয়ে পাপিয়া আক্তার স্থানীয় মসজিদের মক্তবে আরবি পড়ে। রবিবার সকাল ৮টার দিকে মক্তব ছুটির পর পাপিয়া অন্য শিশুদের মতো সড়ক পার হয়ে বাড়ি ফেরার সময় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চাপা দেয় এবং রিকশার চাকা পাপিয়ার বুকের ওপর দিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন চালকসহ ঘাতক অটোরিকশাটি আটক করে ও গুরুতর আহত পাপিয়াকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত অবস্থায় শিশুটি মারা যায়।

স্থানীয় একজন বলেন, গফরগাঁওয়ের ব্যাটারিচালিত কোনো রিকশা-গাড়ির চালকের প্রশিক্ষণ বা ট্রাফিক আইন সম্পর্কে ন্যূনতম ধারণা নাই। এ জন্যই এরা বেপরোয়াভাবে চালায় ও মানুষ মারে। এ ব্যাপারে প্রশাসনেরও মাথাব্যথা নেই।

গফরগাঁও থানার ওসি অনুকূল সরকার বলেন, এ বিষয়ে কেউ জানায়নি। তবে খোঁজ নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।