পাঁচ দিনের রিমান্ডে হেফাজতে ইসলামের ৩ নেতা

Hefazat-e-Islam Bangladesh

রাজধানী ঢাকার পল্টন থানায় ২০১৩ সালে দায়ের করা নাশকতার মামলায় হেফাজত নেতা শাখাওয়াত হোসেন রাজী, ফখরুল ইসলাম ও মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দীকে ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

২০১৩ সালে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের তাণ্ডবের ঘটনায় পল্টন থানায় দায়ের করা মামলায় সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব মুফতি শাখাওয়াত হোসাইন রাজীসহ তিন জনকে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। বাকি দু’জন হলেন- হেফাজত নেতা ফখরুল ইসলাম ও মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী।

আজ বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মোর্শেদ আল মামুন ভূঁইয়া প্রত্যেকের পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে বুধবার (১৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় রাজধানীর লালবাগ এলাকা থেকে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতা শাখাওয়াত হোসেনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সন্ধ্যায় লালবাগ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সম্প্রতি রাজধানীতে সংহিংসতার ঘটনায় পল্টন ও মতিঝিল থানায় দায়ের করা একাধিক মামলার তিনি এজাহারভুক্ত আসামি।

এদিকে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) যাত্রাবাড়ীর মীর হাজিরবাগ থেকে হেফাজতের সহসাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি শরিফউল্লাহকে গ্রেফতার করে যাত্রাবাড়ী থানায় সোপর্দ করে ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগ।

মুফতি শরিফউল্লাহ ২০১৩ সালের ৫ মে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে সহিংস ঘটনার পরদিন যাত্রাবাড়ী থানায় হওয়া বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। সেই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।