করোনা উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা আরও দুই জনের মৃত্যু

coronavirus

প্রাণঘাতী করোনা উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় ও মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৬ টায় তারা মারা যান।

মৃতরা হলেন- সাতক্ষীরার শহরের কামাননগরের সৈয়দ আলীর ছেলে আব্দুর রহমান (৮০) ও দেবহাটা উপজেলার খেজুরবাড়িয়া গ্রামের সোহরাব হোসেনের স্ত্রী রহিমা খাতুন (৪৫)।

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ভবতোষ কুমার মন্ডল জানান, গত ১৫ জুলাই জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি হন শহরের কামাননগরের আব্দুর রহমান। পরদিন তার নমুনা সংগ্রহ করে যশোর প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাব এ পাঠানো হয়। মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। সোমবার পর্যন্ত তার নমুনা রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।

এদিকে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত ১০ জুলাই সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি হন দেবহাটার খেজুরবাড়িয়া গ্রামের রহিমা খাতুন। পরদিন তার নমুনা সংগ্রহ করে যশোর প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাব এ পাঠানো হয়। সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। সোমবার পর্যন্ত তার রিপোর্ট আসেনি।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তাদের বাড়ি লকডাউন করা হবে। এনিয়ে, সাতক্ষীরায় করেনার উপসর্গ নিয়ে আজ পর্যন্ত মারা গেছেন অক্রাত ৩৭ জন। আর করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ১৩ জন।